সেপ্টেম্বরের প্রথমেই জবাবদিহি করতে বিধানসভায় তলব শুভেন্দু অধিকারীকে



HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ঃ সম্প্রতি তৃনমূল নেতা মুকুল রায় ইস্যুতে বিধানসভায় সরব হতে দেখা যায় রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা বিজেপির সদ্য ভারপ্রাপ্ত বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীকে। যেখানে সেদিন স্পিকারকে নানা ধরনের আক্রমণাত্মক কথাও বলে ছিলেন তিনি। বিধানসভার সেই বাজেট অধিবেশনে স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘দলদাস’ বলেও আক্রমণ করে ছিলেন এই বিরোধী দলনেতা।

তা নিয়ে রাজনৈতিক মহলে রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছিল। এবার সেই বাক-আক্রমণের জন্যই সেপ্টেম্বরের প্রথমেই শুভেন্দুর কাছে জবাবদিহি চেয়ে তলব করে পাঠালেন বিধানসভার স্বাধীকার কমিটি। আগামী ৬ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাঁর কাছে জবাবদিহি চেয়ে পাঠাল বিধানসভার স্বাধীকার কমিটি। গত বৃহস্পতিবার বিধানসভায় স্বাধিকার কমিটির বৈঠক হয়। সেই বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন বিধানসভার ডেপুটি স্পিকার আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়।



সেই বৈঠকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, আগামী ৬ই সেপ্টেম্বরের মধ্যে নন্দীগ্রামের বিজেপির বিধায়ককে জবাবদিহি করতে হবে বিধানসভায় এসে। তারপর তাঁরা ৯ই সেপ্টেম্বর সে নিয়ে আবারও বৈঠকে বসবেন। তবে সেদিন ঠিক কী ঘটেছিল?‌ বস্তুত বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কুৎসা ও অবমাননাকর মন্তব্য করার অভিযোগ আনা হয়েছে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে। তিনি স্পিকারকে ‘দলদাস’ বলেও আক্রমণ করেন, এমনটাই অভিযোগ উঠেছে।

আর তখন বিধানসভায় উপস্থিত মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য তাঁর বিরুদ্ধে স্বাধিকারভঙ্গের প্রস্তাব আনেন। এই প্রস্তাব গৃহীত হলে তা পাঠানো হয় স্বাধিকার কমিটির কাছে। আর সেই কমিটিই এ বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে করে বিরোধী দলনেতার কাছে জবাবদিহি চেয়ে পাঠিয়েছেন। শুভেন্দু অধিকারী অবশ্য এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন না। তবে শুভেন্দু ছাড়াও স্বাধিকারভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে সিপিআইএম নেতা শতরূপ ঘোষের বিরুদ্ধেও। তাঁর বিরুদ্ধে নোটিশ এনেছেন উপ–মুখ্যসচেতক তাপস রায়।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: