পরপর দুঃসাহসিক ডাকাতি ও চুরির ঘটনা অশোকনগরে, নড়েচড়ে বসল প্রশাসন

HnExpress ৩১শে ডিসেম্বর, অরূপ অধিকারী, অশোকনগর ঃ রাত তেমন হয়নি। মাত্র পৌনে দশটা। শীতের রাত, প্রায় সব বাড়ির দরজা-জানালাই বন্ধ। এক হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী তপন বিশ্বাস, নিজের দোকান বন্ধ করে সবে বাড়ি ফিরেছেন। মোটরবাইক রেখে গেটে তালা দিচ্ছেলেন তিনি। তখনই হঠাৎ মোটরবাইকে করে তিনজন দুষ্কৃতী আসে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তাঁর বুকে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে টাকা, মোবাইল ও এটিএম কার্ডটি কেড়ে নেয় তারা। এরপর পালিয়ে যায়। পরপর দুঃসাহসিক ডাকাতি ও চুরির ঘটনা ঘটলো অশোকনগরে, নড়েচড়ে বসল প্রশাসন

উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর থানার এজি কলোনিতে মঙ্গলবার রাতে এই ঘটনা ঘটে। আর এই দুঃসাহসিক ও ভয়াবহ ডাকাতির ঘটনায় অশোকনগর-কল্যাণগড় পুরসভার ২০ ওয়ার্ডের এজি কলোনিতে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এলাকার মানুষ আতঙ্কে রয়েছেন। এদিন তপন বিশ্বাস জানিয়েছেন, দুষ্কৃতীরা তাঁর কাছ থেকে নগদ ২৬ হাজার টাকা, মোবাইল ও এটিএম কার্ড ছিনিয়ে নিয়ে গিয়েছে। গলার সোনার চেন ধরে টান মারলেও জামায় আটকে যাওয়ায় সেটা আর নিতে পারেনি বলেও জানান তিনি।

আবার অন্যদিকে, সেই মঙ্গলবারই প্রায় মধ্যরাতে অশোকনগর মানিকনগরে একটি বাড়ির জানালা খুলে ল্যাপটপ চুরি করে কিছু দুষ্কৃতী। এদিন রাতে পাশের অপর এক বাড়ি থেকে চুরি গিয়েছে একটি সাইকেল। এক রাতে এমন তিন ডাকাতি ও চুরির ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকার মানুষ। এছাড়াও সুত্রের খবর, এদিন সন্ধ্যা ছ’টা নাগাদ পাশের হাবরা থানার নতুন হাট এলাকায় একটি বাড়িতে দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। তিনটি বাইকে ছ’জন দুষ্কৃতী এসে ওই বাড়িতে ঢুকে ঘর আটকে রেখে তান্ডব চালায়।

বাড়ির লোকজনকে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে প্রচুর টাকা ও সোনার গহনা নিয়ে পালিয়ে যায় তারা। পাশাপাশি দুই থানা এলাকায় একের পর এক চুরি-ডাকাতির ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে স্থানীয় বাসিন্দারা। প্রশ্ন তুলছেন স্থানীয় মানুষের পাশাপাশি বিরোধী মহলও।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: