বাংলা নারী নির্যাতনের রাজধানী হয়ে গিয়েছে, মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গজেন্দ্রের—

HnExpress অরূপ অধিকারী, হাবরা ঃ নারী নির্যাতন নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারংবার বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলোর বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে এসেছেন। এদিন পালটা তোপ দাগলেন কেন্দ্রীয় জল সম্পদ উন্নয়নমন্ত্রী গজেন্দ্র সিং শেখওয়াত। আজ শনিবার উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ায় সাংবাদিক বৈঠকে গজেন্দ্র বললেন, ‘বাংলা নারী নির্যাতনের রাজধানীতে পরিণত হয়েছে। বাংলার মা-বোনেরা সুরক্ষিত নয়। মহিলাদের উপর নির্যাতন বেড়েই চলেছে।

আর সেটা ঢাকতেই ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডে ব্যুরোকে রাজ্য তথ্য দিচ্ছে না। এই সরকার তোলাবাজির সরকার। সিন্ডিকেটের সরকারে পরিণত হয়েছে।’ তারপরই কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সংযোজন, ‘আমরা রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সোনার বাংলা গড়ব। বাংলার স্বর্ণযুগ ফেরানোর জন্য ভারতীয় জনতা পার্টি চেষ্টা করছে। আগামী বিধানসভা নির্বাচনে এই লক্ষ্য পূরণের জন্য কোমর বেঁধে নেমেও পড়েছে। সবাই মিলে জোটবদ্ধ হোন।’

বাংলা নারী নির্যাতনের রাজধানী হয়ে গিয়েছে, মন্তব্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গজেন্দ্রের। এদিন গজেন্দ্র তৃণমূলের মা-মাটি-মানুষ স্লোগানকে কটাক্ষও করেন। তিনি বলেন, ‘দশ বছর আগে মানুষের সরকার গড়েছিল তৃণমূল। কিন্তু মা, মাটি ও মানুষ তিন জনকেই ধোঁকা দিয়েছে তারা। এখন বাংলায় অপরাধের সরকার চলছে।’ এদিন গজেন্দ্রর সঙ্গে ছিলেন, বিজেপির রাজ্য নেতা বিশ্বপ্রিয় মজুমদার, রীতেশ তিওয়ারি, জেলা সভাপতি শংকর চট্টোপাধ্যায় ও অন্যান্য নেতৃত্ব।

এদিন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের খাসতালুক হাবড়ায় দিনভর চক্কর কাটেন তিনি। ফুলতলা, বামিহাটি, যশুর এলাকায় একাধিক কর্মসূচিতে যোগ দেন। শেষে তিনি সাংবাদিক বৈঠক করেন। সেখানে তিনি আরও বলেন, ‘গত লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে বিজেপি ১৮টি আসন পেয়েছিল। আর তাতে প্রমাণিত হয়েছে, বাংলার মানুষ পরিবর্তন চাইছেন। ফলে এই হাবড়াতেও বিজেপি প্রায় ২১ হাজার ভোটে লিড পেয়েছিল। তাতে আমরা নিশ্চিত, খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক এখানে এবার হারবেন। বিজেপি এখানে একতরফা ভাবেই জিতবে।’

Leave a Reply

%d bloggers like this: