সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে সদ্য পদ্মফুল ত্যাগী শ্রাবন্তীর যোগদান ঘাসফুলে



HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ঃ এবার সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে সদ্য পদ্মফুল ত্যাগী টলিউড খ্যাত অভিনেত্রী শ্রাবন্তীর অবশেষে ঘাসফুল শিবিরে যোগদান। আজ সোমবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার অন্তর্গত বাসন্তীতে তৃণমূলের একটি অনুষ্ঠানে এসে ঘাসফুলের পতাকা হাতে তুলে নিলেন অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। এদিন তৃণমূলের মঞ্চ থেকেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর নানা প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে ওঠেন তিনি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের আগেই পদ্মফুল শিবিরে যোগ দেন তিনি। বেহালার পশ্চিম কেন্দ্রে বিজেপির টিকিটে প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিতও হন। তাঁর বিপক্ষে ছিলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মতো দুঁদে নেতা। কিন্তু অন্যদিকে বিজেপির এই প্রার্থী নির্বাচন নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন অনেকেই। যদিও তাতে গুরুত্ব দেয়নি দল। আর শ্রাবন্তীর এই প্রচার প্রক্রিয়ায় দিল্লি থেকে এসে ছিলেন খোদ অমিত শাহ। কিন্তু তাতেও কোনো লাভ হল না। গত বিধানসভা নির্বাচনে শ্রাবন্তীকে গো-হারান হারিয়ে বিপুল সংখ্যক ভোটে জয়ী হন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়।



সুত্রের খবর, ঠিক তারপর থেকেই বিজেপির কোনও কর্মসূচিতে আর দেখা যায়নি তাঁকে। অবশেষে সম্প্রতি নভেম্বরে একটা ট্যুইট করে বিজেপি দল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেন তিনি। আর এই ট্যুইটে দলত্যাগের কারণ হিসেবে লিখে ছিলেন, “যে দলের হয়ে গত বিধানসভা নির্বাচনে লড়েছিলাম, সেই বিজেপির সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করছি। বাংলার জন্য তাঁদের কোন উদ্যোগী মনোভাব নেই ও আন্তরিকতার অভাব দেখেই এই সিদ্ধান্ত নিলাম।” যা রীতিমতো উসকে দিয়েছিল দলবদলের এই জল্পনাকে।

সে সময় অভিনেত্রী আরও জানিয়েছিলেন যে, সময় আসলেই সবটা জানা যাবে। সোমবার সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে পাকাপাকি ভাবে দলবদল করলেন তিনি। এদিন বাসন্তীতে তৃণমূল আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সায়ন্তিকা-সহ অন্যান্য তৃণমূল নেতা-নেত্রীবৃন্দ। আর তাঁদের উজ্জ্বলময় উপস্থিতিতেই নতুন করে ঘাসফুল পরিবারের সদস্যা হলেন শ্রাবন্ত্রী। আর তৃণমূলে যোগদানের পরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়ে উঠলেন তিনি।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: