আন্দুল রাজবাড়ির পুজোয় সিংহ আজও গড়া হয় ঘোড়ার আদলে



HnExpress সৌম্যজিৎ চক্রবর্তী, হাওড়া ঃ এই বাড়ি ও তার পুজোর ইতিহাস বহুল পঠিত ও চর্চিত। বহু প্রতিবেদনে প্রকাশিত, কথিত আছে স্বয়ং লর্ড ক্লাইভ এই পুজোয় এসেছিলেন ১০ হাজার টাকার সন্দেশ, ১০৮ পদ্ম ও ১ হাজার টাকা প্রণামী নিয়ে।



শারদীয়ায় কামান দাগা, কাঙালি ভোজন, আলোর ঝলকানি, নাচঘরের মুজরো, বিষাণ বাজিয়ে, তূর্যধ্বনি সহকারে মোষ আর ১২টি ছাগ বলি… সেসব দিন গেছে কবেই। এখন সেই রাজপাটও নেই, কামানের তোপধ্বনি, বলিপ্রথাও বন্ধ। কিন্তু রয়ে গেছে শতাব্দী প্রাচীন কিছু রীতি-ঐতিহ্য।

শারদ শুভেচ্ছা।

এখনও রাজবাড়ির একচালার প্রতিমা তৈরি করা হয় আট মণ মাটি দিয়ে। দেবীর বাহন সিংহের মুখ আর গ্রীবা হয় ঘোটকের মতো। আজও পুজোর ১২ দিন আগে থেকেই শুরু হয়ে যায় পুজোর আচার অনুষ্ঠান। কৃষ্ণা-নবমী তিথিতে বসে কল্পারম্ভ।



আর অষ্টমীর রাতে ধুনুচি নাচ উসকে দেয় রাজতন্ত্রের সেই আমলকে। আর বহু ঘটনার সাক্ষী ক্রমশ দীর্ণ-জীর্ণ হতে থাকা রাজবাড়ির ৬০ ফুট উঁচু ১২টি স্তম্ভ হয়তো নীরবে ঠায় দাঁড়িয়ে রোমন্থন করে অতীতের পুজোর দিনগুলোর স্মৃতি।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: