“আজাদি কা আমৃত মহোৎসব”র মধ্য দিয়ে সাধারন মানুষকে সি আর পি এফ এর দায়িত্ব অবগত করলেন ১৬৭ ব্যাটেলিয়ন



HnExpress প্রিয়দর্শী সাধুখাঁ, কলকাতা ঃ ভারতের প্রতিরক্ষা বাহিনীর অন্যতম হল সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স  বা সি আর পি আ এফ। এটি ভারতের বৃহত্তম আধা – সামরিক বাহিনী। দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা সংক্রান্ত সমস্ত দায়িত্ব এই বাহিনীকেই দেওয়া হয়ে থাকে। সিআরপিএফ এর প্রধান ভূমিকা হচ্ছে পুলিশের অভিযানে রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলকে আইন শৃঙ্খলা ও বিদ্রোহ দমনে সহযোগিতা করা। বিভিন্ন ভূমিকা পালনের জন্য ভারতীয় আধাসেনার অনেকগুলি শাখাও রয়েছে।

এগুলির অধিকাংশই যদিও জেন্ডারমেরি জাতীয় দায়িত্ব ভাগ করে নেয় ও সাধারণত রাষ্ট্রদ্রোহ বিরোধী বা সন্ত্রাসবাদবিরোধী ভূমিকা পালন করে থাকে। আবার বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স অথবা  ইন্দো-তিব্বতীয় সীমান্ত পুলিশের মতো কয়েকটি শাখা ভারতের আন্তর্জাতিক সীমানা প্রহরায় সেনাবাহিনীকে সহায়তা করে। সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্স প্রাথমিকভাবে ভারতীয় পুলিশকে দেশের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার কাজে সাহায্য করে।

আর ভারতের আধা সামরিক বাহিনীগুলির মধ্যে এটিই বৃহত্তম বাহিনী। সোমবার ইন্ডিয়ান সিআরপিএফ ১৬৭ ব্যাটেলিয়“৭৫ তম আজাদি কা আমৃত মহোৎসব” বলে একটি অনুষ্ঠান উপলক্ষে সাধারণ মানুষকে অস্ত্র শিক্ষার মধ্য দিয়ে এই দিনটিকে পালন করেন তাঁরা। কলকাতার ভিক্টোরিয়া সাউথ গেটে আধাসামরিক অফিসার ও জওয়ানরা বিভিন্ন আগ্নেয়অস্ত্র এর প্রদর্শন করেন।

জনসাধারণকে বিভিন্ন অস্ত্র সহ মেশিন গান থেকে ৯ এমএম পিস্তলের ব্যাবহার বুঝিয়ে দেয় তাঁরা। গত বছর ২০২১ এর ১২ই মার্চ থেকে ২০২৩ এর ১৫ই আগষ্ট অবধি ভারতের বিভিন্ন জায়গায় এই উৎসব পালন করা হবে বলে জানান ব্যাটেলিয়ন এর সেনানায়ক এস এন মন্ডল ও দ্বিতীয় সেনানায়ক রবিকলা জী। তিনি আরও বলেন যে, “গত বছর ২০২১ এর ১২ই মার্চ শুরু হয় এই মহোৎসব, যা ২০২৩ এর ১৫ই আগষ্ট শেষ হবে।



এর মধ্য দিয়ে দেশের মানুষকে অবগত অথবা এওয়ার করা হচ্ছে যে সিআরপিএফ কি করে, সিআরপিএফ কি করছে, কেন করছে। এছাড়াও আমাদের মিনিস্টার অব হোম থেকে যে প্রগ্রাম গুলো দিয়েছে সেই গুলো আমরা কি ভাবে পরিচালনা করছি তাও এই অনুষ্ঠানের অংশ। আর এটা আমাদের দেশের বড়ো প্রোগ্রাম। এটি ভারতের সব জায়গায় প্রদর্শিত হচ্ছে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: