আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেফতার দুই তৃণমূল কর্মী



HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, মালদা ঃ বেশ কিছু কার্তুজ ও আগ্নেয়াস্ত্র সহ মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকায় গ্রেফতার করা হলো দুই তৃণমূল কর্মীকে। ধৃত দুই যুবকের নাম রুহুল আমিন (৩০) ও রহমত আলী (২৭)। এদের দুজনের কাছ থেকেই একটি নাইন এমএম বন্দুক এবং দুই রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। ওই দুই তৃণমূল কর্মীর বাড়ি যথাক্রমে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার মালিওর ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের হরকাবাথান এবং পশ্চিম বেলশুর এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে পাওয়া খবর, গতকাল গভীর রাত্রে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকার মালিওর গ্রাম পঞ্চায়েতের কাটামুনি এলাকা থেকে ওই দুই তৃণমূল কর্মীকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার করে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকা জুড়ে। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই ওই এলাকায় পঞ্চায়েত দখলকে কেন্দ্র করে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে। আহত হয় দুই ব্যক্তি।



তারপর বেশ কিছু দিনের মাথায় আবারও ওই এলাকা থেকে অস্ত্র সহ দুই তৃণমূল কর্মী ধরা পড়াকে কেন্দ্র করে এলাকায় তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে। যদিও গোটা ঘটনাকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি জেলা বিজেপি নেতৃত্ব, অন্যদিকে সাফাই ব্লক তৃণমূল নেতৃত্বের। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে তৃণমূল-বিজেপির তরজা। এই ঘটনার জেরে শাসক দলকে তীব্র কটাক্ষ করেছে এলাকার বিরোধী নেতৃত্ব।

এদিন বিজেপির উত্তর মালদা জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক রুপেশ আগারওয়ালা জানান সারা রাজ্য জুড়ে তৃণমূল সন্ত্রাসের রাজত্ব চালাচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ থেকে উত্তরবঙ্গ, সর্বত্র তৃণমূলের কর্মীরা বন্দুক দেখিয়ে মানুষদের ভয় দেখিয়ে রাখছে। তবে এই সন্ত্রাস বেশি দিন চলবে না। যদিও এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের হরিশ্চন্দ্রপুর ২ নম্বর ব্লক সভাপতি হজরত আলী জানান, বেআইনি কাজ দল সমর্থন করে না। অস্ত্রসহ ধরা পরা ওই দুই ব্যক্তি যদি তৃণমূল কর্মী হয় তাহলেও আইন আইনের পথেই চলবে।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: