মার্চে পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরার কথা ছিল ছেলের, আর খোঁজ মিলছে না ইউক্রেনে ডাক্তারি পড়ুয়া মাসুমের



HnExpress বিশ্বজিৎ মন্ডল, মালদা ঃ ইউক্রেন থেকে বাবা-মাকে ছেলে ফোনে জানিয়েছিলেন বাঙ্কারে লুকিয়ে আছে, কিন্তু খাবার শেষ। জল নেই। বাইরে অনবরত গোলা বর্ষন আর সাইরেনের আওয়াজ। এরপরেই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সেই থেকে ছেলের আর কোনো খোঁজ পাচ্ছেন না মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের মিটনা হাইস্কুলের শিক্ষক মহম্মদ মোমিনুদ্দিন। ছেলের খোঁজ না পেয়ে আতঙ্কে দিন কাটছে দম্পতির।

তাহলে কি ছেলে রাশিয়া- ইউক্রেনের যুদ্ধে প্রাণ হারালেন? নাকি খাওয়ার ও জলের অভাবে বাঙ্কারেই অচৈতন্য অবস্থায় পড়ে রয়েছেন? নানা দুশ্চিন্তা মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে অসহায় বাবা মায়ের। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, মিটনা হাইস্কুলের শিক্ষক মহম্মদ মোমিনুদ্দিনের ছেলে মাসুম হামিদ পারভেজ ইউক্রেনের কিভে মেডিক্যাল কলেজের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র। আগামী ১৫ই মার্চ ছিল মাসুমের পরীক্ষা। তারপরেই ঘরে ফেরার কথা ছিল তাঁর।



কিন্তু হঠাৎই রাশিয়া ও ইউক্রেন যুদ্ধের ফলে সেখানে আটকে যায় সে। ইউক্রেনের বিভিন্ন জায়গা থেকে একে একে ভারতীয় ডাক্তারি পড়ুয়াদের ঘরে ফেরার খবর মিললেও, মাসুমের কোনও খবর নেই। সরকারি ভাবে কোন তথ্যও মেলেনি। ছেলে আদৌ বাড়ি ফিরতে পারবে কিনা, তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় ঘুম উড়েছে দম্পতির। ভারত সরকারের কাছে তাঁরা কাতর আবেদন জানিয়েছেন, যাতে কোনো বাবা মায়ের কোল যেন খালি না হয়। সকলের ছেলে মেয়ে যেন ভালোয় ভালোয় ঘরে ফিরে আসে।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: