ভয়াবহ ঘটনা বাঁশদ্রোণীতে, আমফানের দেড় সপ্তাহ পর গাছ সরাতে গিয়ে বেরিয়ে এল মৃতদেহ

HnExpress ৩১শে মে, জয় গুহ, কলকাতা ঃ বাংলায় ঘূর্ণিঝড় আমফানের তাণ্ডবের পর প্রায় দেড় সপ্তাহ মত কেটে গেছে। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সেনা সহ এনডিআরএফ শহরের অধিকাংশ ভেঙে পড়া গাছ সরিয়ে রাস্তা ফাঁকা করছেন। আর এমন সময়েই আজ, রবিবার সাতসকালে দক্ষিণ কলকাতার বাঁশদ্রোণী এলাকায় ঘূর্ণিঝড় আমফানের জেরে পড়ে যাওয়া গাছ সরাতে গিয়ে উদ্ধার করা হয়েছে এক ব্যক্তির পচাগলা মৃতদেহ।

সূত্রের খবর, বাঁশদ্রোণীর উষা বাজার এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয় এক ব্যক্তির পচাগলা দেহ। জানা গিয়েছে, আমফান ঘূর্ণিঝড়ে গাছ পড়ে মৃত্যু হয় ওই ব্যক্তির। রবিবার  সকালে গাছ সরিয়ে এলাকা পরিষ্কার করার সময় পাঁচিলের পাশ থেকে উদ্ধার করা হয় এই মৃতদেহটি। তবে মৃত ব্যক্তির পরিচয় এখনও জানা যায়নি। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

অপরদিকে, একে করোনার সংক্রমণ, তার উপর ঘূর্ণিঝড় আমফানের বিধ্বংসী প্রলয়ের ফলে বিপুল পরিমাণে ক্ষতিগ্রস্থ বাংলার মাটি। চাষের জমি থেকে শুরু করে বাড়ি, ঘর প্রায় সব কিছুর লোকশানের জের কাটিয়ে উঠতে উঠতে যে অনেকটাই সময় কেটে যাবে তা বলাই বাহুল্য। আর তারই মাঝে বাঁশদ্রোণীর এই মর্মান্তিক ঘটনা যেন ভয়াবহ আমফানের কথা আরও একবার মনে করিয়ে দিল কলকাতাকে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: