তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের বক্তব্যে বেরিয়ে এল দিনহাটা তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরের গোষ্ঠী কোন্দলের গন্ধ

HnExpress ১১ই ফেব্রুয়ারী, সৌভিক সিংহ রায়, দিনহাটা : CAA ও NRC নিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে, দিনহাটা তৃণমূল কংগ্রেসের অন্দরের গোষ্ঠী কোন্দলের গন্ধ বেরিয়ে এল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতাদের বক্তব্যে। তৃণমূল যুব নেতা অজয় রায়, তৃণমূল ছাত্র পরিষদ নেতা আমির আলম ও তৃণমূল ছাত্র পরিষদ নেত্রী সাবানা খাতুনকে গ্রেপ্তারের দাবি তুলল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের একটি গোষ্ঠী।

তাদের গ্রেপ্তারের দাবি সহ কলেজের বর্ধিত ফি কমানোর দাবিতে সোমবার দিনহাটা মহকুমা শাসকের দপ্তর চত্বরে বিক্ষোভ ও ডেপুটেশন জমা দেয় তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। এদিন সংগঠন এর তরফ থেকে দিনহাটা থানাতেও বিক্ষোভ এর ডেপুটেশন জমা দেওয়া হয়। এদিনের এই বিক্ষোভ ডেপুটেশনের নেতৃত্ব দেন দিনহাটা পুরসভার তৃণমূলের বহিস্কৃত কাউন্সিলার জয়দীপ ঘোষ।

এদিনের এই কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে তৃণমূল ছাত্র সংগঠনের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ফের প্রকাশ্যে উঠে এলো। যদিও জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি নরেন দত্ত লবলেন, দিনহাটায় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের এদিনের এই কর্মসূচির কোন অনুমতি দেওয়া হয়নি। এদিন দিনহাটা কলেজ চত্বর থেকে দিনহাটা মহাবিদ্যালয় সংগ্রামী ছাত্র ছাত্রী ঐক্য ব্যানারে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের একটি মিছিল বের করা হয়।

বেশ কিছু ছাত্র রীতিমত খালি গায়ে মিছিলে সামিল হয়। মিছিলে তৃণমূল যুব নেতা অজয় রায়, তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা আমির আলম ও ছাত্রনেত্রী সাবানা খাতুনের গ্রেপ্তারের দাবি তোলা হয়। তাদের বক্তব্য, গত ২০শে জানুয়ারি দিনহাটা কলেজের সাগর রায় নামে এক ছাত্রকে বহিরাগত একদল দুষ্কৃতী বাহিনী রীতিমতো লাঠিসোটা দিয়ে আক্রমণ করে মেরে ফেলার চেষ্টা করে।

আর ওই ঘটনায় জড়িত সেই দোষীদের এখনো অব্দি গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। এ বিষয়ে বহিস্কৃত তৃণমূল কাউন্সিলর জয়দীপ ঘোষ বলেন, সাগর সাহার উপর একদল দুষ্কৃতী হামলা চালায়। ওই ঘটনায় যারা দোষী তারা বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুলিশও তাদের গ্রেপ্তার করতে পারছে না।

 

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: