লক্ষ্মী ভান্ডার প্রকল্পের আবেদনকারীরা কবে থেকে টাকা পাবেন নিজস্ব সেভিংস একাউন্টে?



HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ঃ কিছু দিন হল শেষ হয়েছে রাজ্য সরকার পরিচালিত দুয়ারে সরকার ক্যাম্প। যেখানে স্বাস্থ্য সাথী, কৃষকবন্ধু, খাদ্যসাথী, সহ প্রভৃতি প্রকল্পের মধ্যে সব থেকে সাড়া ফেলে ছিল নয়া প্রকল্প “লক্ষ্মীর ভান্ডার।” রাজ্য সরকারের সেই নতুন প্রকল্প ‘‌লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’‌ এর টাকা মিলবে কবে?‌ যদিও শেষ হয়েছে প্রকল্পের আবেদন! এই বিষয়ে রাজ্যবাসীকে স্বস্তির খবর দিল রাজ্যের মুখ্য প্রসাশনিক কার্যলয় নবান্ন।

পুজোর আগেই মহিলাদের অ্যাকাউন্টে পৌঁছে যাবে এই টাকা। গত ১৬ই আগস্ট থেকে রাজ্যে শুরু হওয়া ‘দুয়ারে সরকার’ শিবিরের কাজ গত বুধবার ১৬ই সেপ্টেম্বর শেষ হয়েছে। মোট ৯২ হাজার ৪৮টি শিবির করার কথা ছিল। যার মধ্যে ৯১ হাজার ৯০৩টি শিবির করা হয়েছিল। আর এই শিবিরে এসেছিলেন ৩ কোটি ৫৮ লক্ষ ৭৪ হাজার ৭৯১ জন মানুষ। তার মধ্যে ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডারে’ আবেদন জমা পড়েছে ১ কোটি ৭৯ লক্ষ ২৬ হাজার ৩৬৮টি।



শুধু লক্ষীর ভান্ডারই নয় পাশাপাশি রয়েছে ‘স্বাস্থ্যসাথী’র আবেদনও। যেখানে আবেদন জমা পরেছে ৬৪ লক্ষ ৩১ হাজার ৯৫১টি। ‘‌খাদ্যসাথী’‌র আবেদন জমা পড়েছে ২৭ লক্ষ ৮৭ হাজার ৬০৭টি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি আগেই জানিয়েছিলেন, ১লা সেপ্টেম্বর থেকেই ‘লক্ষ্মীর ভাণ্ডার’ প্রকল্পের টাকা পেতে শুরু করবেন রাজ্যের মহিলারা। সেক্ষেত্রে এসসি, এসটি বা ওবিসি’রা পাবেন এক হাজার টাকা করে এবং সাধারণ মহিলাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যাবে পাঁচশো টাকা।

তবে পুজোর আগেই যাতে রাজ্যের মহিলারা এই আর্থিক সাহায্য পেয়ে যান, তার জন্য তিনি প্রশাসনিক আধিকারিকদের কড়া নির্দেশও দিয়েছেন। সুত্রের খবর, ইতিমধ্যেই অনেকের ব্যাংক একাউন্টে লক্ষ্মীর ভান্ডারের টাকা ঢুকেছে গেছে। আবার অনেকেরই ফোনে আবেদনপত্র গ্রহণ ও বেনিফিসিয়ারি নাম নথিভুক্তের এসএমএস পৌঁছে গেছে। এখন দেখার বিষয় মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী পুজোর আগে কতজন মহিলা এই আর্থিক সহয়তা পাবেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: