উত্তর ২৪ পরগণা জেলাশাসকের দপ্তরে মনােনয়ন পত্র জমা দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী চিরঞ্জিত চক্রবর্তী ও রথীন ঘােষ—

HnExpress প্রিয়দর্শী সাধুখাঁ, বারাসাত ঃ মার্চ মাস প্রায় শেষ হওয়ার দিকে। রাজ্য সরকার থেকে বিরোধী ভোট প্রতিনিধিদের এখন একটাই গন্তব্য, জেলাশাসকের দপ্তর। নিজ নিজ মনোনয়নপত্র জমা দিতে করোনাকে তোয়াক্কা না করেই লোক সমাগম সহকারেই তাঁরা কাজে ব্যাস্ত। এদিন উত্তর ২৪ পরগণার জেলাশাসকের দপ্তরে মনােনয়নপত্র জমা দিলেন বারাসাত বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী চিরঞ্জিত চক্রবর্তী এবং মধ্যমগ্রাম বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী রথীন ঘােষ।

চিরঞ্জিত চক্রবর্তী সংবাদপাঠক হিসেবে দেশ  পত্রিকায় কাজ করেছেন। তিনি একজন বিখ্যাত মঞ্চ অভিনেতা ও সফল পরিচালকও। পশ্চিম বাংলার অন্তর্গত বারাসাত বিধানসভা কেন্দ্রের সিটে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষে লীগ অ্যাসেম্বলিতে অংশগ্রহণ করেন এবং জয়যুক্ত হন। ২০২১ এর বিধানসভা ভোটে আবারও বারাসাত বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হয়ে ভোটে লড়ছেন চিরঞ্জিত চক্রবর্তী। এদিন মনোনয়ন যাত্রায় উপস্থিত ছিলেন সাংসদ ডাঃ কাকলি ঘোষদস্তিদার সহ অগণিত কর্মী সমর্থক।

অন্যজন মধ্যমগ্রাম পৌরসভার পৌর প্রশাসক তথা বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী রথীন ঘোষ। যিনি একজন ভারতীয় রাজনীতিবিদ। তিনি বহু বছর যাবৎ সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের  রাজনীতির সাথে যুক্ত। ২০১১ সাল থেকে তিনি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় মধ্যমগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এদিন বারাসাত বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী চিরঞ্জিত চক্রবর্তী বলেন, “মনোনয়ন জমা দেওয়াটি হলো যুদ্ধের একটি দ্বিতীয় পদক্ষেপ।

এখানে এসডিওর সামনে একটি দায়বদ্ধতা স্বীকার করতে হয় যে, দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করবো এবং জেতার পরও এমএলএ হিসাবে দেশের দায়ভার নিতে হবে। হ্যাট্রিক অবশ্যই হবে”। অন্যদিকে মধ্যমগ্রাম বিধানসভার তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী রথীন ঘােষ বলেন, “অতিমারির দ্বিতীয় ধাপের কথা মাথায় রেখেই এবার ভোট প্রচার থেকে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার শোভাযাত্রায় জাকজমক কম আছে। তবে প্রতিবারের মতোই মানুষের সংখ্যা অনেক। যে সব স্থান থেকে যাঁদের যাঁদের আসার কথা তাঁরা সবাই এসেছেন। ব্যাক্তিগত ভাবে দুইবার আমি জয়লাভ করেছি, আর এবারও সেই মানুষের ভালোবাসা ও আশির্বাদে জিতবো বলেই আজ এখানে এসেছি“।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: