প্রকাশিত হলো মাধ্যমিকের ফলাফল, উচ্ছ্বসিত পড়ুয়াগণ

HnExpress ১৫ই জুলাই, জয় গুহ, কলকাতা ঃ আজ প্রকাশিত হল মাধ্যমিকের ফলাফল। বুধবার সকাল ১০টায় ঘোষণা মতই ফল প্রকাশ করা হল। সকাল সাড়ে ১০টার পর থেকেই ওয়েবসাইট থেকে ফল জানতে পেরেছে ছাত্রছাত্রীরা। তবে ২২শে জুলাই স্কুলেই পাওয়া যাবে মার্কশিট। কলকাতায় মাধ্যমিকে পাশের হার ৯১.০৭ শতাংশ। তবে এই সাফল্যের হার সর্বোচ্চ পূর্ব মেদিনীপুরে। দ্বিতীয় স্থানে পশ্চিম মেদিনিপুর ও তৃতীয় স্থানে কলকাতা। প্রথম দশে রয়েছেন ৮৪ জন।

তবে এই মেধাতলিকায় কলকাতার একজনও।চলতি বছরের ১৮ই ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছিল মাধ্যমিক পরীক্ষা। চলেছিল ২৭শে ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এবার মাধ্যমিকে পাশের হার ৯১.০৭ শতাংশ। যা সর্বকালের রেকর্ড। মাধ্যমিকে প্রথম বর্ধমানের অরিত্র পাল। তার প্রাপ্ত নম্বর ৯৯.১৪ শতাংশ।

সরকারি ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যাবে রেজাল্ট : মধ্যশিক্ষা পর্ষদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট www.wbbse.org তে ক্লিক করতে হবে।
১) WBBSE class 10 results লিঙ্কে ক্লিক করতে হবে।
২) নিজের রোল নম্বর এবং জন্ম তারিখ দিয়ে ‘Submit’-অপশনে ক্লিক করতে হবে।
৩) স্ক্রিনে মাধ্যমিক পরীক্ষা ২০২০ সালের রেজাল্ট WBBSE Madhyamik Result 2020 দেখাবে।

আরও একাধিক ওয়েবসাইট থেকে মাধ্যমিক পরীক্ষা ২০২০ সালের রেজাল্ট দেখা যাবে সেগুলি হল,
wbresults.nic.in
www.exametc.com
www.indiaresults.com
www.results.shiksha ..
SMS-এর মাধ্যমে মাধ্যমিক পরীক্ষার ২০২০ সালের রেজাল্ট দেখতে পাওয়া যাবে,
WB10Roll Number লিখে ৫৬৭৬৫০ নম্বরে মেসেজ পাঠাতে হবে। এছাড়াও App-এর মাধ্যমে রেজাল্ট দেখতে পাওয়া যাবে, Google Play Store-এ গিয়ে Madhyamik Results 2020 App ডাউনলোড করলে সেখানেই রেজাল্ট দেখা যাবে।

এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল ভার্চুয়াল এদিন সাংবাদিক বৈঠকে ঘোষণা করলেন মধ্যশিক্ষা পর্ষদের (West Bengal Board of Secondary Education বা WBBSE) সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায়। আনুষ্ঠানিক ভাবে ফল প্রকাশ করলেন পর্ষদের সভাপতি। ১৩৯ দিনের মাথায় ফল প্রকাশিত হল। সব মিলিয়ে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১০,০৩,৬৬৬। ছাত্র সংখ্যা ৪,৩৭,৯৯৮ জন।

তবে ছেলেদের তুলনায় মেয়েদের সংখ্যা বেশি ১২.৭২ শতাংশ। ১,২৭,৬৭০ জন ছাত্রী বেশি। সাফল্যের হারে ছাত্রীরা সামান্য পিছিয়ে থাকলেও পর্ষদের সভাপতির বিশ্বাস যে, খুব তাড়াতাড়িই ছাত্রদের ধরে ফেলবে ছাত্রীরাও।
যদিও পাশের নিরিখে এগিয়ে পূর্ব মেদিনীপুর (৯৬.৫৯ শতাংশ)। দ্বিতীয় স্থানে পশ্চিম মেদিনীপুর (৯২.১৬ শতাংশ)। তৃতীয় স্থানে কলকাতা (৯১.০৭ শতাংশ)। তারপর আছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং উত্তর ২৪ পরগনা।

৪৯ টি ক্যাম্প অফিসের মাধ্যমে মার্কশিট এবং সার্টিফিকেট দেওয়া হবে। আগামী ২২শে জুলাই সকাল ১০টা থেকে বিতরণ করা হবে মার্কশীট। সব ক্যাম্প অফিস এবং স্কুল স্যানিটাইজেশনের জন্য এক সপ্তাহ সময় নেওয়া হচ্ছে। সুরক্ষা বিধি নেওয়ার আর্জি জানান পর্ষদের সভাপতি। সফল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৮,৪৩,৩০৫। কোনও রেজাল্ট বাকি নেই। ৫৮ জনের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। প্রথম স্থান প্রাপ্ত, একজনই হয়েছে। ৬৯৪ পেয়েছে, পূর্ব বর্ধমানের মেমারি বিদ্যাসাগর মেমোরিয়ালের ছাত্র অরিত্র পাল।

মেয়েদের মধ্যে প্রথম দেবস্মিতা পাঠক, পূর্ব মেদিনীপুুরের ভবানীচক হাইস্কুলের ছাত্রী। দ্বিতীয় স্থান, দু’জন হয়েছে, বাঁকুড়ার ওন্দা হাইস্কুলের সায়ন্তন গড়াই এবং কাটোয়া কাশীরাম দাস স্কুলের অভীক দাস, তাদের প্রাপ্ত নম্বর ৬৯৩। ছেলে মেয়ে মিলিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে তিনজন। বাঁকুড়ার কেন্দুয়াডিহি হাইস্কুলের সৌম্য পাঠক, অরিত্র মাইতি এবং দেবস্মিতা পাঠক। প্রাপ্ত নম্বর ৬৯০।

চতুর্থ স্থানে রয়েছে, বীরভূম জেলার স্কুলের অগ্নিভ সাহা, তার প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৯। পঞ্চম স্থানে প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৮। ষষ্ঠ স্থানে ১২ জন, প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৭। সপ্তম স্থানে ১৭ জন, প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৬। অষ্টম স্থানে প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৫। নবম স্থানে প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৪। দশম স্থানে প্রাপ্ত নম্বর ৬৮৩। গত বছর মাধ্যমিকে (WBBSE Class 10th Result 2019) সার্বিক পাশের হার ছিল ৮৬.০৪ শতাংশ।

তবে সেবারেও পাশের হারে এগিয়ে ছিল পূর্ব মেদিনীপুর (৯৬.০১ শতাংশ)। তারপরেই ছিল কলকাতা (৯২.১৩ শতাংশ), পশ্চিম মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, উত্তর ২৪ পরগনা ইত্যাদি জেলা। প্রথম হয়েছিলেন পূর্ব মেদিনীপুরের মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের সৌগত দাস। তাঁর প্রাপ্ত নম্বর ছিল ৬৯৪। প্রথম দশে ছিলেন ৫১ জন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: