ফের বাড়লো গ্যাসের দাম, কম্পিটিশনের বাজারের সাথে খাপ খাওয়াতে সপ্তাহে সপ্তাহে চলছে দাম বৃদ্ধি

HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ঃ কেন্দ্রীয় সরকারের “আচ্চে দিন” আসার পরেও দাম বাড়ছে গ্যাসের, প্রেট্রলের সাথে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের। রোজকার বাজারের ব্যাগ সামলাতে হিমসিম খাচ্ছে মধ্যবিত্ত থেকে নিম্নবিত্ত। ফলে ফের বাড়লো গ্যাসের দাম, কম্পিটিশনের বাজারের সাথে খাপ খাওয়াতে সপ্তাহে সপ্তাহে দাম বৃদ্ধি চলছে। জনসাধারণের মুখে একটাই প্রশ্ন, যে আম্ফান আর করোনা আবহে ফ্রী চাল, গম দিয়েই কি সরকার গ্যাসের দাম বাড়িয়ে টাকা ঘরে তুলছে?

একটা মাসের বিরতির পরেই ডিসেম্বরের পুনরাবৃত্তি ঘটল ফেব্রুয়ারি মাসে। বেড়ে গেলো রান্নার গ্যাসের দাম। গ্যাস এখন ঘরে তুললেই দাম হবে ৭৯৫ টাকা ৫০ পয়সা। গত রবিবার রাষ্ট্রায়ত্ত তেল কোম্পানিগুলি রান্নার গ্যাসের নতুন দাম ঘোষণা করার পর দেখা গেছে, ১৪.২ কিলো গার্হস্থ্য ভর্তুকিহীন এলপিজি সিলিন্ডারের দাম এক ধাক্কায় ৫০ টাকা বৃদ্ধি করা হয়েছে। বর্তমানে কলকাতায় গার্হস্থ্য ভর্তুকিহীন এলপিজি সিলিন্ডারের দাম ছিলো ৭৪৫ টাকা ৫০ পয়সা। 

সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা গেছে, ভর্তুকি বাবদ গ্রাহকের অ্যাকাউন্টে কত টাকা পাঠানো হবে সেই বিষয়ে রাষ্ট্রায়ত্ত তেল কোম্পানিগুলির তরফ থেকে নির্দিষ্ট কিছু জানানো হয়নি। তবে যদিও এই পর্যায়ে ১৯ কিলো ওজনের বাণিজ্যিক সিলিন্ডারের দাম ৯ টাকা ৫০ পয়সা কমানো হয়েছে। ফলত নতুন দাম হয়েছে ১,৫৮৯ টাকা। সূত্রের খবর অনুযায়ী, ২০২০ সালেই জানা গিয়েছিল, সপ্তাহে সপ্তাহে LPG সিলিন্ডারের দাম পরিবর্তন করার বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

বিশ্বের বাজারে দামের এই ওঠা-পড়ার সাথে সঙ্গতি রেখে প্রতি সপ্তাহে LPG সিলিন্ডারের দাম স্থির করতে চাইছে তেল কোম্পানিগুলি।
করোনা পরিস্থিতিতে দেশের অর্থনীতি বেহাল অবস্থায় চাকরি হারিয়েছে বেশীর ভাগ মানুষ। বেসরকারি সংস্থাগুলিতেও ছাঁটাই এর সাথে সাথে বেতন কাটছাঁট হয়েছে। এই অবস্থায় সংসার চালাতে হিমসিম খাওয়া মধ্যবিত্তর রাগ গিয়ে পরতে পাড়ে ২১ এর ভোটেও। এমনটাই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

Leave a Reply

%d bloggers like this: