অবশেষে জুলাইতেই একুশের আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা শুরু বলে জানালো গিল্ড, সহযােগিতার হাত সিঁথির বইমেলাতেও

HnExpress প্রিয়দর্শী সাধুখাঁ, কলকাতা ঃ হবে না, হবে না করেও, অবশেষে হবে “৪৫তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২১”। ৪ঠা ফেব্রুয়ারি, বৃহস্পতিবার কলকাতা প্রেসক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে বইমেলার মাস নির্ধারণ করা হলো। তবে এখনও দিনক্ষনের কথা জানানো হয়নি কলকাতা পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের তরফ থেকে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, ২০২০-র ২৪শে ডিসেম্বর পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের বইমেলা বিষয়ক একটি সভাতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য স্বাস্থ্যবিধি নিয়ম মানার কথা মাথাতে রেখে কয়েক মাস পিছিয়ে দেওয়া হবে ৪৫ তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলাকে।

২৪শে ডিসেম্বরের এই সভাতেই পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের সভাপতি ত্রিদিব কুমার চট্টোপাধ্যায় বলে ছিলেন যে, ‘‌ যেখানে আন্তর্জাতিক বিমান চলছে না, স্কুল–কলেজ বন্ধ, ভ্যাকসিন আসেনি— এ অবস্থায় লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবন–মরণের প্রশ্ন যেখানে জড়িত সেখানে এত বড় উৎসব করা উচিত হবে না। মেলা প্রাঙ্গনে এককালীন ১০০ জন করে প্রবেশ করানো বা ৭৫০ স্টলের মধ্যে কোনও স্টলের ভেতরে লোকজন ঢুকতে পারবে না, সেলফি নিতে পারবে না— এ সব করা সম্ভব নয়, বরং অবাস্তব’।

আজ সেই পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের তরফ থেকে বলা হয়েছে পৃথিবীব্যাপী অতিমারির কারণে “৪৫তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২১” তার নির্ধারিত সময়ে আয়ােজন করা সম্ভব হয়নি তাদের। মেলার সময় পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়ে ছিলেন তাঁরা। বর্তমানে এখন পরিস্থিতি অনেকটকি স্বাভাবিক হয়ে যাওয়াতে জুলাই মাসে সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে বইমেলার আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে গিল্ড। ২০২১ এর আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার ফোকাল থিম কান্ট্রি “বাংলাদেশ।”

২০২১ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ সেই সাথে একইসঙ্গে ২০২১ এর বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্ণ হবে। আর সেই কারন হিসাবেই বইমেলা ২০২১কে উৎসর্গ করা হবে বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমান এবং বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীনতার নামে। ভারত ও বাংলাদেশ অবস্থানগত ভাবে প্রতিবেশী রাষ্ট্র ও বন্ধু রাষ্ট্র হিসেবেই পরিচিত সারা বিশ্বে। দেশ নায়ক নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু’র ১২৫ তম জন্মবর্ষ ও চিত্রপরিচালক সত্যজিৎ রায়ের জন্মশতবর্ষও পালিত হবে ২০২১ এর কলকাতা বইমেলাতে ।

সেই সাথে গত ২০২০ সালে চিরতরে হারিয়ে যাওয়া বিশিষ্ট মানুষজন, যেমন— সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, প্রণব মুখােপাধ্যায়, দেবেশ রায়, আনিসুজ্জামান, নিমাই ভট্টাচার্য, মানবেন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়, অলােকরঞ্জন দাশগুপ্ত, স্বপন মজুমদার প্রমুখদের শ্রদ্ধার্ঘ্য জানাবে পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ড। একদিকে যেমন করোনা, তেমনি অন্যদিকে রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন, আই.সি.এস.সি, সি.বি.এস.সি, বাের্ডের পরীক্ষা, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার জন্য বইমেলাটি আগামী জুলাই মাসে করা হবে বলে সিধান্ত নেওয়া হয়।

২১ এর বইমেলাতে গিল্ডের আরও একটি পদক্ষেপ হলো, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে উদযাপন করা হবে “একুশে ভাষা উৎসব”। জুলাই মাসে যেহেতু আগত বর্ষাকাল, তাই সেই কথা চিন্তা করেই সেই রকম ব্যবস্থাও নেওয়া হবে এবং এ বিষয় পরের মাসে একটি সাংবাদিক সন্মেলন করেই তা জানাবে গিল্ড। এদিনের সাংবাদিক সন্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের উপ রাষ্ট্রদূত তৌফিক হাসেন, গিল্ড এর পক্ষ থেকে ছিলেন সাধারণ সম্পাদক সুধাংশু শেখর দে, সভাপতি ত্রিদিব চ্যাটার্জি প্রমুখ।

আর অপরদিকে, এই মাসেই বরানগর পৌর নিগম আয়োজন করতে চলেছে বরানগর বই উৎসব। যেখানে স্টলগুলি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেওয়ার ব্যবস্থা করে সহযােগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ড। সিঁথি সার্কাস ময়দানে এই উৎসব শুরু হবে আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি এবং তা চলবে ১৪ই ফেব্রুয়ারি, ২০২১ পর্যন্ত।

Leave a Reply

%d bloggers like this: