রাজ্যে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা, সর্তকতা জারি করল রাজ্য প্রশাসন

HnExpress অরুন কুমার, ওয়েদার রিপোর্ট ঃ ভোট পর্ব শেষ, গণনা শেষ, কিন্তু এর মধ্যেই দূর্যোগ ঘনিয়ে আসার সতর্কবার্তা দিল রাজ্যের আবহাওয়া দপ্তর। পরবর্তী ৪৮ ঘন্টায় রাজ্যে বজ্র-বিদ্যুৎ সহ ভারী ও মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা পরিপ্রেক্ষিতে সর্তকতা জারি করল রাজ্য প্রশাসন। এ বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিপর্যয় মোকাবিলা ও সিভিল ডিফেন্স বিভাগের পক্ষ থেকে আগামী ২-৬ই মে আগত প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় সতর্কতামূলক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশনামা জারি করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, Indian Metrological Deptt (IMD) থেকে গত ৩০শে এপ্রিল আবহাওয়ার যে পূর্বাভাস পাওয়া গেছে তাতে বলা হয়েছে যে, আগামী ২রা মে থেকে ৬ই মে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বজ্রপাত ও ঝড়ো হওয়া সহ মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে।
এরই পাশাপাশি, উত্তরবঙ্গের কোন কোন জেলা সহ নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম ও উত্তর ২৪ পরগণা জেলার কোনো কোনো স্থানে আগামী ৩রা মে থেকে ৫ই মে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

এছাড়াও IMD এর পরামর্শ মতো সমস্ত জন সাধারণকে অনুরোধ জানানো হয়েছে যে, এই
বজ্রপাত সহ বৃষ্টি চলাকালীন খোলা আকাশের নিচে থাকবেন না। অবশ্যই কোন পাকা বাড়িতে আশ্রয় নেবেন। কোন গাছের তলায়, বিশেষ করে দূরবর্তী বিচ্ছিন্ন কোন গাছের তলায় কোন ভাবেই আশ্রয় নেবেন না। অন্যদিকে, চাষী ভায়েদের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে যাতে কেউ এই দুর্যোগের সময়ে মাঠে বা খোলা আকাশের নিচে না থাকে।

এ বিষয়ে রাজ্য সরকারের বিপর্যয় মোকাবিলা বিভাগের পক্ষ থেকে সব জেলার জেলাশাসক, এসপি সহ পুলিশ প্রশাসন এবং কৃষি দপ্তরের আধিকারিকদেরকে অনুরোধ জানানো হয়েছে যে, তাঁরা যেন নিম্নলিখিত বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। জনসচেতনতার জন্য প্রচারের পাশাপাশি জনগণের প্রাণ ও সম্পত্তি রক্ষা করার কুইক রেসপন্স টিমকে প্রস্তুত রাখা হয়। তবে সকল ব্যবস্থা গ্রহণের সময় কোভিড বিধি সার্বিক ভাবে পালন করা হয়, দূরত্ববিধি ও মাস্ক পড়া ও হ্যান্ড স্যনিটাইজার ব্যবহার করা বাধ্যতামূলক।

এরই পাশাপাশি IMD এর সমস্ত সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তির প্রতি যেন নজর রাখা হয়। IMD প্রতিটি জেলার প্রাকৃতিক দুর্যোগের এক বা দু ঘন্টা আগে যে সতর্কীকরণ বার্তা পাঠাবে সেদিকে কঠোর নজর রাখা ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এই কথাগুলি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নির্দেশিকায় উল্লেখ করে সতর্ক থাকার কথা স্থানীয় পুলিশ ও প্রশাসনের পাশাপাশি পৌরসভা, কর্পোরেশন, পঞ্চায়েত পরিষেবাকেও তৈরি থাকতে বলা হয়েছে।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: