এক রোগীকে শ্লীলতাহানির ঘটনায় আটক বর্ধমানের প্রাইভেট নার্সিংহোমের কর্মী



HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান ঃ এক অসুস্থ মহিলা রোগীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠল বর্ধমানের এক প্রাইভেট নার্সিংহোমের কর্মীর বিরুদ্ধে। গত বুধবার শ্বাসকষ্ট কষ্ট জনিত কারণে পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রাম থানার অভিরামপুরের বাসিন্দা এক মহিলা বোরহাট এলাকার একটি প্রাইভেট নার্সিংহোমে ভর্তি হন। কিন্তু ভর্তির পর সেই রাতেই বাপ্পা সরকার নামে নার্সিংহোমের এক সাধারণ কর্মী প্রেসার মাপার আছিলায় সেই মহিলার শ্লীলতাহানি করে বলে অভিযোগ।

অভিযোগের ভিত্তিতে জানা গেছে, ঘটনায় ভয়ে পেয়ে মহিলাটি বৃহস্পতিবার অসুস্থ অবস্থাতেই বন্ড সাইন করে ছুটি নিয়ে বাড়ি ফিরে যায়। আর ফিরে গিয়েই সমস্ত ঘটনা বাড়ির লোকজনকে জানাতেই শুক্রবার সকালে বাড়ির লোকজন এসে অভিযুক্ত বাপ্পা সরকারকে জেরা করায় সে সব দোষ স্বীকার করে। স্বীকারোক্তির পরেই তাকে বেধড়ক মারধোর শুরু করেন ভিক্টিমের পরিবার। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে পাবলিকের হাত থেকে অভিযুক্তকে ছাড়িয়ে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।



অভিযুক্ত বাপ্পা সরকারের এ হেন নোংরা ও অসামাজিক কাজ হেতু চরম শাস্তির দাবি করছে রোগীর পরিবার সহ নার্সিংহোম সংলগ্ন এলাকাবাসীরা। এখন প্রশ্ন হচ্ছে যে, একজন প্রশিক্ষিত মেডিকেল স্টাফ না হয়েও বাপ্পা কি ভাবে একজন রোগীর প্রেসার মাপতে যায়? এ নিয়ে সেই প্রাইভেট নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধেও সরব হয়েছেন তাঁরা। অবিলম্বে গোটা বিষয়টার উপর প্রসাশনিক হস্তক্ষেপ দাবি করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা। বর্ধমান থানার পুলিশ গোটা বিষয়টা তদন্ত সহকারে খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: