Mon. Dec 9th, 2019

সিরাজ সম্মানে ভূষিত সাহিত্যিক সাধন চট্টোপাধ্যায়

HnExpress দেবনাথ চক্রবর্তী, কলকাতা : ছিলেন শিক্ষক। মূল বিষয় ছিলো পদার্থবিদ্যা, কিন্তু ক্লাসে পড়াতেন বাংলা। তাঁর পোশাকী নাম শিক্ষণ জগতের বাইরে যায় নি। কিন্তু ডাকনামে চিনতেন সবাই। বাংলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাথে ছিলো নিবিড় যোগাযোগ। তুলে এনেছেন তাঁদের জীবন ও মাটির সাথে কাটাবার একের পর এক মর্মস্পর্শী গল্প ও উপন্যাস। ছোট পত্রিকাগুলো উন্মুখ হয়ে থাকতো তাঁর একটি লেখা পাওয়ার জন্য। তিনি বাংলার অন্যতম সিরাজ সম্মানে ভূষিত সাহিত্যপ্রেমী ও স্রষ্টা সাধন চট্টোপাধ্যায়।

আপাত আদ্যোপান্ত সহজ সরল বিজ্ঞান (বাংলারও) শিক্ষককে মানুষ চিনলেন অনেক পর । তার আগেই তাঁর সাহিত্য নিয়ে প্রখ্যাত চিত্র পরিচালক রাজেন তরফদার তৈরী করেছেন পূর্ণদৈর্ঘ্যের চিত্র। হয়েছে নাটকও। চূড়ান্ত প্রচারবিমুখ এই শিক্ষক প্রতিনিয়ত লালন করতেন মানুষের দুর্দশাগ্রস্ত জীবনের রূপকথা।

এ বছর আধুনিক প্রজন্মের এই সাহিত্যিক সাধন চট্টোপাধ্যায়কে ‘সিরাজ’ পুরষ্কারের জন্য নির্বাচন করলো সিরাজ আকাদেমি। সম্প্রতি রোটারী সদনে তাঁকে পুরষ্কার প্রদান করলেন কবি শঙ্খ ঘোষ, শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়, পবিত্র সরকার সহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে সৈয়দ মুস্তাফা সিরাজ ও সাধন চট্টোপাধ্যায়ের সাহিত্য নিয়ে আলোচনা করা হয়।

আলোচনায় ছিলেন সুমিতা চক্রবর্তী প্রমুখ। এদিন সাহিত্যিকের হাতে তুলে দেওয়া হয় মানপত্র, পুষ্পস্তবক, উত্তরীয় ও নগদ পুরষ্কার।।সেদিনের ভিড়ে ঠাসা প্রেক্ষাগৃহ প্রমাণ করে দিল বাংলা সাহিত্য চির অমর। যতদিন বাঙালি থাকবে ততদিন মুস্তাফা সিরাজ ও সাধন চট্টোপাধ্যায়রা বেঁচে থাকবেন অজেয় হয়ে বাংলা সাহিত্য জগতে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: