সেভিংস ব্যাংক একাউন্টে নগদ ক্যাশ জমা করার নিয়ম, জেনে নিন তার বিস্তারিত তথ্য—

HnExpress ২১শে জুন, অভিষেক মুখার্জি, ট্যাক্স কনসালটেন্ট ঃ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে সেভিংস ব্যাংক একাউন্ট এর গুরুত্ব অনেক। আমরা আমাদের বহু কষ্টের অর্জিত অর্থ আমাদের সেভিংস একাউন্টে জমা করি। কিন্তু একটি বিষয় সবার জানা খুব প্রয়োজন। সেভিংস একাউন্টে নগদ টাকা জমা আর তা তোলার কিছু বিশেষ নিয়ম আছে। সেভিংস ব্যাংক একাউন্টে নগদ ক্যাশ জমা করার সেই নিয়ম সম্পর্কে জেনে নিন কিছু বিস্তারিত তথ্য—

একটি নির্দিষ্ট অংকের টাকার বেশি যদি আপনি জমা করেন বা তোলেন তাহলে ব্যাংক সেই বিষয়ে সম্পূর্ণ তথ্য ইনকাম ট্যাক্স ডিপার্টমেন্ট কে দিতে বাধ্য থাকবে। এটা ব্যাংকের দায়িত্বের মধ্যে পরে। আসুন জেনেনি সেই সম্বন্ধে কিছু তথ্য।
১) আপনি যদি কোনো আর্থিক বছরে ১০ লক্ষ বা তার বেশি নগদ টাকা ব্যাংকে জমা করেন তাহলে ব্যাংক সেই তথ্য ইনকাম ট্যাক্স কে জানাতে বাধ্য ( ডিমান্ড ড্রাফট আর চেকও এর সাথে যুক্ত)। এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, আর্থিক বছর শুরু হয় যেকোনো বছরের ১লা এপ্রিল আর শেষ হয় আগামী বছরের ৩১এ মার্চ।

২) আপনি যদি কোনো আর্থিক বছরে ১০ লক্ষ বা তার বেশি নগদ টাকা সেভিংস একাউন্ট থেকে তোলেন তাহলেও ব্যাংক কিন্তু তার তথ্য ইনকাম ট্যাক্স কে দেবে।
৩) এই ১০ লক্ষ টাকা আপনি এক বাড়ে জমা করতে পারেন বা একটু একটু করে। ব্যাংক বছরের শেষে হিসেবে করে দেখবে আপনি একটি নির্দিষ্ট আর্থিক বছরে মোট কত টাকা জমা করেছেন বা তুলেছেন।

৪) অনেকেই এটা ভাবতে পারেন যে একটি ব্যাংকে জমা করার দরকার নেই। আলাদা আলাদা ব্যাংকে সেভিংস একাউন্ট খুলে তাতে জমা করবো। তাহলে ইনকাম ট্যাক্স এই বিষয়ে কিছুই জানতে পারবে না। তাদের উদ্দেশ্যে জানাই যে তারা সম্পূর্ণ ভুল। আপনি যত খুশি ব্যাংক একাউন্ট খুলুন না কেন, প্রত্যেকটি একাউন্ট খোলার সময় আপনাকে আপনার প্যান জমা করতেই হয়। আর এই ১০ লক্ষ টাকা কোনো একটি ব্যাংক একাউন্টে সীমাবদ্ধ নয়। আপনার সমস্ত সেভিংস একাউন্ট মিলিয়ে ১০ লক্ষ নগদ টাকা হিসাব করা হবে। তাই এই বিষয় টা আপনাকে জানতেই হবে আর বুঝতেও হবে এর গুরুত্ব।

৫) এই প্রসঙ্গে জানিয়ে রাখি, আপনাদের মধ্যে একটি ভ্রান্ত ধারণা আছে। কেও যদি ব্যাংকে ৫০ হাজার নগদ টাকার কম জমা করে তাহলে প্যান দিতে হবে না। আর ইনকাম ট্যাক্স ও কিছু জানতে পারবে না। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। আগেই বলেছি যে আপনার প্যান ব্যাংক একাউন্টের সাথে লিংক করে আছে। তাই আপনি না দিলেও কিছু যায় আসবে না। আপনি ১ টাকা জমা করুন বা ১০০০ টাকা, বছরের শেষে যদি মোট জমার অঙ্ক ১০ লক্ষ বা তার বেশি হয়, তাহলেই ব্যাংক সেই সম্বন্ধে তথ্য দিতে বাধ্য।

৬) এবার প্রশ্ন হলো, ইনকাম ট্যাক্স এই তথ্য নিয়ে কি করবে? প্রথমে, আপনার আয়কর রিটার্ন পরীক্ষা করে দেখবে। যদি সব তথ্য ঠিক থাকে তাহলে কোনো চিন্তা নেই। না থাকলে আপনাকে নোটিশ পাঠাবে আর সেই নগদ টাকার উৎস জানতে চাইবে। যদি দিতে পারেন তাহলে ঠিক, না হলে সেই সম পরিমান অর্থ আনএক্সপ্লেইন্ড ক্যাশ ক্রেডিট হিসেবে ধরা হবে। ধরা যাক, আপনি ব্যাংকে ১৫ লক্ষ টাকা নগদ জমা করেছেন। কিন্তু ইনকাম ট্যাক্সকে আপনি ৬ লাখের ব্যাপারেই সব তথ্য দিতে পারলেন।

সেক্ষেত্রে কিন্তু ৯ লক্ষ হলো আনএক্সপ্লেইন্ড ক্যাশ ক্রেডিট। আর এই অর্থের ৬০% ট্যাক্স চার্জ করা হবে। অর্থাৎ ৯ লাখের উপর ৬০% মানে ৫ লক্ষ ৪০ হাজার আপনাকে ট্যাক্স হিসেবে জমা করতে হবে। আশা করবো যে, আজকের উপরিউক্ত তথ্য গুলি আপনাকে অনেক সাহায্য করবে। এই প্রসঙ্গে কোনো প্রশ্ন থাকলে অবশ্যই করবেন। আপনাদের প্রশ্নের জবাব দিতে সদা প্রস্তুত হাইলাইট নিউজ এক্সপ্রেস, জনগণের সাথে-জনগণের পাশে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: