আর পরতে হবে না মাস্ক, জারি নয়া কোভিড বিধিনিষেধ ঃ ব্রিটেন



HnExpress ওয়েবডেক্স নিউজ, ব্যুরো রিপোর্ট ঃ আবার সবকিছু স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে আসার আশায় গোটা বিশ্ব। মাস্ক খুলে মুক্ত বাতাস নেওয়ার অপেক্ষায় দিন গুনছে ব্রিটেনবাসীও, যা কিনা এখন দৈনন্দিন জীবনে দৈনন্দিন পোশাকে পরিণত হয়েছে। কিন্তু এই জীবনযাত্রায় রীতিমতো বিরক্ত ব্রিটিশ নাগরিক থেকে সরকার। তাই মাস্ক খুলে ফেলতে চাইছেন তাঁরা। UK কোভিড নিউজ সুত্রে জানা গেছে যে, বর্তমানে ব্রিটেনে করোনা সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। তাই মাস্ক পরিধান এখন আর বাধ্যতামূলক নয় বলে জানালেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী জরিস বরসন।

এবারে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সব সময় আর পরতে হবে মাস্ক, নয়া কোভিড বিধিনিষেধ জারি করলো ব্রিটেন। এবার থেকে আর বদ্ধ জায়গায় বা ক্লাব-পাব -এ পরতে হবে না মাস্ক। এরই পাশাপাশি আইসোলেশন বা কোভিডবিধি ভাঙলেও জরিমানার মুখে পড়তে হবে না ব্রিটেনবাসীদের। আর ঘরে বসে কাজ নয়, এখন থেকে অফিসে গিয়েই স্বাভাবিক ভাবেই কাজ করতে পারবে ব্রিটিশ নাগরিকবৃন্দ।



তবে নাইট ক্লাবের মতো জায়গায় প্রবেশ করতে গেলে অবশ্যই প্রয়োজন ভ্যাকসিনেশন সার্টিফিকেটের। আগামী সপ্তাহ থেকেই এই নয়া নিয়ম লাঘু হতে চলেছে। বুধবার পার্লামেন্টে এমনটাই জানিয়েছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। বিদেশ সংবাদ সংস্থার খবর অনুযায়ী জানা গেছে, গত মাস থেকেই দেশ জুড়ে নাকি ব্যাপক ভ্যাকসিনেশন চালিয়েছে ব্রিটিশ সরকার। প্রবীন নাগরিকদের যথেষ্ট বুষ্টার ডোজও দেওয়া হয়েছে।

যদিও জানুয়ারির শুরুতেই ব্রিটেনে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা দুই লক্ষ এর ওপর উঠে যায়। ‌কিন্তু সেই সময় চিকিৎসক এবং বিজ্ঞানীরা বারবার দেশ জুড়ে লকডাউনের আবেদন জানালেও তাতে কর্ণপাত করেননি প্রধানমন্ত্রী জনসন। তবে জানুয়ারির ঠিক মাঝামাঝি থেকেই এই পরিস্থিতির মধ্যেই কমতে থাকে করোনা সংক্রমনের হার, আশার আলো দেখেন দেশবাসী। তাই করোনার পরিস্থিতি মোকাবিলায় এবার অনেকটাই লাগাম ছাড়তে চলেছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী।

https://www.facebook.com/HN-Express-জনগণের-সাথে-জনগণের-পাশে-104215761171088/

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: