অবশেষে সব অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে দীপাবলির আগেই চালু হতে চলেছে লোকাল ট্রেন

HnExpress ৬ই নভেম্বর, অরুণ কুমার, কলকাতা নবান্ন ঃ লকডাউনের পর আনলক পর্ব শুরু হলেও লোকাল ট্রেন চালু করা সম্ভব হয়নি এখনও। ফলে রীতিমত অসুবিধার মধ্যে রয়েছেন বহু নিত্যযাত্রী। তবে নানান জল্পনা কল্পনা ও টানাপোড়েনের পরে অবশেষে ট্রেন চালু করার দিন ঘোষণা করলেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। নবান্ন সুত্রের খবর, প্রায় ৮ মাস পর আগামী সপ্তাহ অর্থাৎ খুব সম্ভব দীপাবলির আগেই রাজ্যে চালু হয়ে যাচ্ছে লোকাল ট্রেন।

তাতেই খুশির হাওয়া যাত্রীমহলে। আনলক পর্বে মুম্বইতে সাবধানতা অবলম্বন করে এই পরিষেবা চালু হওয়ার পরই এখানেও তা চালুর জন্য চাপ বাড়ছিল প্রতিনিয়ত। আর তা অবশ্যম্ভাবী হয়ে উঠছিল, প্রায় নিত্যদিন রেলের স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেনে সাধারণের উঠতে চাওয়ায় অশান্তির সেই ছবিতে। শেষমেশ সিদ্ধান্ত নিয়ে সীমিত পরিসরে লোকাল ট্রেন চালুতে সিলমোহর পড়ল রেল ও রাজ্যের যৌথ উদ্যোগে। নিউ নর্মালে কোভিডের নতুন পদ্ধতি মেনেই যাত্রীদের সফর করতে হবে ট্রেনে

করোনা সংক্রমণ রুখতে আবশ্যিক মাস্ক ও স্যানিটাইজারের ব্যবহার। তবে করোনাকালে লোকাল ট্রেনের ভিড় নিয়ন্ত্রণ করে যথাযথ এবং সুরক্ষিতভাবে পরিষেবা চালানো রেলের কাছে যে একটা বড় চ্যালেঞ্জ, তা কিন্তু বলাই বাহুল্য।
আনলক ফোর থেকে কলকাতা-সহ দেশের অন্যান্য মহানগরীতে চালু হয়েছিল মেট্রো রেল পরিষেবা। নিউ নর্মালে নতুন নিয়ম মেনে চলছে মেট্রোয় যাতায়াত। আর অতিরিক্ত ভিড় এড়াতে ই-পাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাতে বেশ মসৃণ গতিতেই এগোচ্ছে পাতাল রেলের চাকা।

আর আনলক ফাইভে কিন্তু মুম্বইতে কলকাতা মেট্রোর মডেলেই চালু হয়ে গিয়েছে লোকাল ট্রেন। সেই মডেলকে সামনে রেখেই বাংলায় লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে গতকাল নবান্নে বৈঠকে বসেছিল রেল ও রাজ্য সরকার। সম্প্রতি বিশেষত রেলকর্মীদের জন্য বিশেষ ট্রেনে উঠতে চেয়ে আরপিএফের হাতে সাধারণ যাত্রীদের ধারাবাহিক ভাবে হেনস্তা হওয়ার ঘটনায় উদ্বিগ্ন রাজ্য প্রশাসন রেলকে এই প্রস্তাব দেয়। ২ এবং ৪ তারিখ মোট দু’দফায় এ নিয়ে নবান্নে রাজ্য প্রশাসনের শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন রেলকর্তারা।

আর তাতে স্থির হয়, হাওড়া ও শিয়ালদহ শাখায় রোজ যথাক্রমে, ১১৪ ও ৫০ জোড়া করে ট্রেন চালানো হবে। আর পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব মিলিয়ে ১৮১ জোড়া লোকাল ট্রেন চলবে। তবে ঠিক কী পদ্ধতিতে? কোন সময়ে ট্রেন চলবে? কারা কারা তাতে সফর করতে পারবেন? কীভাবেই বা ট্রেনে চড়া যাবে? তার চূড়ান্ত বিধিপদ্ধতি স্থির করতেই গতকাল বৃহস্পতিবার বৈঠক ছিল নবান্নে। তাতে স্থির হয়, শিয়ালদহ শাখায় দৈনিক বেশি ট্রেন চলবে। আগের মতো কাউন্টার থেকেই টিকিট কেটেই ট্রেনে ওঠা যাবে। তবে মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক।

মোটামুটি সব বড়-মাঝারি স্টেশনেই দাঁড়াবে ট্রেন। তবে দূরত্ববিধি মানতে জনসচেতনতায় জোর দেওয়া হচ্ছে বেশি করে। অফিস টাইমে ভিড় এড়াতেই বেশি ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত রেল-রাজ্যের। আগামী বুধবার অর্থাৎ লোকাল ট্রেন চালুর প্রথম দিন মোট ১৮১ জোড়া ট্রেন চলবে রাজ্য জুড়ে। রাজ্যের অন্যান্য অংশে লোকাল ট্রেন চালানোর ক্ষেত্রে বিষয়টি বিবেচনাধীন বলে জানা গেছে। সব ঠিক থাকলে এবং সমস্ত স্বাস্থ্য বিধি মেনে সঠিক মাত্রায় পর্যাপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করা সম্ভব হলে আগামীতে আরও বাড়তি ট্রেন চালু করা হতে পারে বলে রেল সুত্রের খবর। তবে এখনো দূরপাল্লার ট্রেন চালু করার বিষয় কোন সিধান্তে আসেনি প্রশাসন।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: