বিদায়ের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেলেও দুর্গা পুজোর কদিন বৃষ্টি অসুরের দাপট চলবে, জানিয়ে দিল আবহাওয়া দপ্তর



HnExpress অরুণ কুমার, ওয়েদার রিপোর্ট ঃ বাংলায় নিম্নচাপের বৃষ্টির হালচাল বর্তমান সময়ে কিছুটা থমকে গেলেও, দুর্গা পুজোর কদিন কিন্তু বৃষ্টি অসুরের দাপট চলবে বলেই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। অষ্টমী থেকে দশমী, উত্তরবঙ্গে না হলেও দক্ষিণে কলকাতা, দুই ২৪ পরগণা এবং দুই মেদিনীপুরে রয়েছে নিম্নচাপের সম্ভাবনা। মহালয়ার দিন থেকেই শুরু হয়েছে দেশ থেকে বর্ষা-বিদায়ের পালা। উত্তর-পশ্চিম ভারতে এদিন থেকেই ধাপে ধাপে বিদায় নিতে শুরু করেছে মৌসুমী বায়ু।

পশ্চিম রাজস্থান, পঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ এর কিছু অংশ থেকে বর্ষার বিদায় পর্ব শুরু হয়েছে। তবে পশ্চিমবঙ্গে বর্ষা-বিদায় হতে আরও বেশ কিছুদিন সময় লাগবে। মৌসম ভবনের পূর্বাভাস অনুযায়ী, অক্টোবর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে বাংলা থেকে বর্ষা বিদায় নিতে পারে! এদিকে পুজোর দিনগুলিতে কেমন আবহাওয়া থাকবে কলকাতা সহ গোটা রাজ্যে? আপাতত এই প্রশ্নই ঘোরাফেরা করছে সবার মনে। বর্ষা-বিদায়ের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেলেও পুজোর আগে বর্ষার বিদায় পর্ব সম্পন্ন হবে কি না, তা নিশ্চিত ভাবে কিছু বলা যাবে না।

উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে বয়ে আসা ঠান্ডা বাতাসের ধাক্কায় বর্ষা কিছুটা পিছু হটতে থাকে। তবে সেই হাওয়া কতটা জোরালো ভাবে ঢুকছে তার উপরেই বর্ষার বিদায় নির্ভর করবে। এদিকে বঙ্গোপসাগরে ফের তৈরি হয়েছে একটি নিম্নচাপ। এর জেরে অতিরিক্ত আর্দ্রতা রয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বাতাসে। বাতাসে জলীয় বাষ্পের ফলে বজ্রগর্ভ মেঘ তৈরি হয়েছে। যার জেরে মাঝে মধ্যেই বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হচ্ছে। রাজ্যের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতেও বিক্ষিপ্তভাবে বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে আজ।

কলকাতাতেও দু-এক পশলা বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। তবে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই বলেঅ জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। কিন্তু এই নিম্নচাপের জেরে মাটি হতে পারে এ বছরের দুর্গাপুজো। তেমনই পূর্বাভাস জারি করে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। আর সেই পূর্বাভাস অনুযায়ী অষ্টমীর রাত থেকেই কলকাতা ও লাগোয়া জেলাগুলিতে শুরু হতে পারে বৃষ্টি। সেই বৃষ্টি চলতে পারে দশমী পর্যন্ত। শুক্রবার পূর্বাঞ্চলী আবহাওয়া অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় পূর্বাভাসে জানিয়েছেন, ১০ই অক্টোবর উত্তর আন্দামান সাগরে তৈরি হবে একটি নিম্নচাপ।

যার জেরে অষ্টমীর রাত থেকে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে পূর্ব এবং পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া, হুগলি ও কলকাতায়। তবে দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় হালকা বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে। তার আগে পর্যন্ত আবহাওয়া মনোরম থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি। পূর্বাভাস অনুসারে জানা গেছে, বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপটি বিজয়া দশমীর দিন অন্ধ্রপ্রদেশের বিশাখাপত্তনম থেকে বিজয়ওয়াড়ার মধ্য দিয়ে ভূভাগে প্রবেশ করবে। যার জেরে অন্ধ্র প্রদেশ, তামিলনাড়ু ও কর্ণাটকে প্রবল বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে এই নিম্নচাপের খুব বেশি প্রভাব পড়বে না পশ্চিমবঙ্গে। এ বিষয়ে আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, উত্তর আন্দামান সাগরে রবিবার নাগাদ একটি নিম্নচাপ তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা। তারপর সেটি পরবর্তী ৪-৫ দিনের মধ্যে ওড়িশা ও অন্ধ্র উপকূলে পৌঁছে যাবে। সেই কারণেই অষ্টমী, নবমী ও দশমীতে কলকাতা, দুই পরগনা, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতা আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে।

বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে শহরে। গত ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় গরম বেড়েছে অতিরিক্ত মাত্রায়। আগামী ২৪ ঘণ্টার তাপমাত্রা আরও ঊর্ধ্বমুখী থাকবে। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় অস্বস্তিকর গরম অনুভূত হবে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় কলকাতায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে বলে হাওয়া অফিস সুত্রের খবর।

Leave a Reply

%d bloggers like this: