খবরের জেরে বাড়ি ফিরলেন পূর্ব মেদিনীপুর এর মহিষাদলের সেই বৃদ্ধ, গঙ্গাধর সামন্ত

HnExpress ১০ই জুন, বাপন ভূঞ্যা, পূর্ব মেদিনীপুর ঃ অবশেষে খবরের জেরে বাড়ি ফিরলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অন্তর্গত মহিষাদলের সেই বৃদ্ধ গঙ্গাধর সামন্ত। যাঁকে তাঁর ছেলে ৩০ টাকার বিনিময়ে দয়া করে বাড়িতে থাকতে ও খেতে দিত। ৯ই জুন, মঙ্গলবার আমরা প্রথম খবর করি যে, মেদিনীপুরের মহিষাদলের এক সত্তর বছরের বৃদ্ধ গঙ্গাধর সামন্ত মহিষাদলের রাজবাড়ির দালানেই অসহায় ভাবে দিন কাটা ছিলেন।

তাঁর ছেলে তাঁকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে, কারণ তিনি এই লকডাউনের শিকার হয়ে কর্মহীন হয়ে পরেছিলেন। ফলতঃ আর কোন উপায় না দেখে বিতারিত হয়ে একমাস ধরে তিনি ওই দালানেই পড়ে ছিলেন। সাহায্য তো দুর অস্ত, কেউ খোঁজ পর্যন্ত নেয়নি। পথচলতি মানুষের দেওয়া কিছু খাবারেই দিন চলত তাঁর। কিন্তু এই খবরটি হাইলাইট নিউজ এক্সপ্রেসে সম্প্রচারিত হওয়ার সাথে সাথেই তা ভাইওরাল হয়ে যায়। আর তার পরেই নড়েচড়ে বসেন জেলা প্রশাসন থেকে শুরু করে কিছু সহৃদয় মানুষও।

আজ স্থানীয় মানুষ ও প্রশাসনের চেষ্টায় তাঁর বাড়ির লোক মানে তাঁর গুনধর ছেলে এসে তাঁকে পুনরায় বাড়ি নিয়ে যায় বলে সুত্রের খবর। স্থানীয় মানুষজন এদিন কিছু টাকা পয়সা দিয়ে সাহায্যও করেন তাঁকে। অন্যদিকে জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে ও মহিষাদল পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে তাঁকে নগদ কুড়ি হাজার টাকা ও চাল, ডাল দেওয়া হয়। পাশাপাশি তাঁকে মাসিক এক হাজার টাকা করে ভাতা ও বাড়ির কিছু মেরামতের প্রয়োজন হলে তাও করে দেওয়া হবে বলে জানালেন পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি তিলক চক্রবর্ত্তী।

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: