নিউ ব্যারাকপুর জুড়ে অজ্ঞাত পরিচিতদের লাগানো রামচন্দ্রের ছবিতে মাল্যদান করে শ্রদ্ধা নিবেদন করলেন শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেস

HnExpress প্রিয়দর্শী সাধুখাঁ, নিউ ব্যারাকপুর ঃ বিজেপির রাজনীতিতে রামচন্দ্র এর স্থান অনেক দিন আগে থেকেই পাকাপাকি ভাবে বসে গেছে। বাংলার বুকে তাই বিভিন্ন অনুষ্ঠানে “জয় শ্রী রাম” স্লোগান বেশ ভালোই শোনা যায়। সূত্র অনুযায়ী খবর, ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়ালে একটি অরাজনৈতিক সভাতে পশ্চিমবাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর বক্তব্য রাখার সময়েও “জয় শ্রী রাম” স্লোগান দেয় কিছু অতিথি।

যা কিছুতেই যুক্তিপূর্ণ নয় বলে দাবি রাজনৈতিক মহলের। এবারে নিউ ব্যারাকপুরের বুকে বিভিন্ন স্থানে রামচন্দ্রের ছবি টাঙ্গানো অবস্থায় দেখা যায়। হয়তো কিছু দিন পর সেই ছবি পথে পরে থাকবে কিংবা বৃষ্টিতে ভিজে ছিঁড়ে যাবে, কিংবা কারোর দোকানে ব্যাবহার হবে। যদিও বা জানা যাইনি কারা এই ভাবে রাস্তায় রাস্তায় রামচন্দ্রের ছবি লাগালো। তাই নব ব্যারাকপুরের বুকে এক অভিনব উদ্যোগ নিলেন শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের কর্মীবৃন্দ।

নব ব্যারাকপুরের বিভিন্ন অঞ্চলে রামচন্দ্রের টাঙিয়ে রাখা ছবিতে মাল্য দান করলেন নব ব্যারাকপুরের শহর তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি সুমন দে। তিনি বলেন, “ভগবান সকলের মঙ্গল করুন। সকলকে শুভ বুদ্ধি দিক। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃণমূল কংগ্রেসকে শিক্ষা দিয়েছেন যে, ভগবানকে পুজো করো। আমরা ভেদাভেদ চাইনা, দাঙ্গা হাঙ্গামা চাইনা, রামচন্দ্রও কখনো চাননি বাংলা তথা ভারত বর্ষ তথা পৃথিবীতে ধর্ম নিয়ে দাঙ্গা বাঁধুক।

আমরা তার জন্য তৃণমূল যুব কংগ্রেসের পক্ষ থেকে আজকে তাঁর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করবো এবং মানুষকে বলবো যারা এই কাজ করছেন তাদের কাছে করজোরে পার্থনা করবো যে, দয়া করে ভগবানকে রাস্তায় নামিয়ে আনবেন না। ভগবানকে বাড়িতে নিয়ে গিয়ে পূজা করুন। ভগবানকে মন্দিরে রাখুন, বা আপনার মনে রাখুন। কোনো রাজনৈতিক দল যদি এটা করে থাকেন তাদের ধিক্কার জানাই। নিম্ন চক্রান্তের বিরুদ্ধে নিউব্যারাকপুরের শহর জুড়ে প্রতিটা প্রতিকৃতিতে মাল্য দান করে রামচন্দ্রকে শ্রদ্ধা নিবেদন করবো।”

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: