কেন্দ্রীয় জলসম্পদ মন্ত্রী নিজেই জানেন না পশ্চিমবঙ্গে ইছামতি বলে একটি নদী রয়েছে, দাবি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের

HnExpress অরূপ অধিকারী, হাবরা ঃ এদিন কেন্দ্রীয় জলসম্পদ মন্ত্রী গজেন্দ্র সিংকে ক্লাস টু পাস বলে কটাক্ষ করলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। পাশাপাশি তিনি বললেন, ভারতবর্ষের মানচিত্রে যে ইছামতি নদী রয়েছে বাংলাদেশ থেকে শুরু হয়ে ভারতবর্ষের আটটি বিধানসভা ঘুরে সেটি আবার বাংলাদেশ মিশে গিয়েছে। কেন্দ্রীয় জল সম্পদ মন্ত্রী তা জানেনই না। ক্লাস টু পাস, থ্রী পাস, ফোর পাস, এসব নেতাদের মন্ত্রী করেছে বিজেপির নেতৃত্ব।

আসলে বিজেপি একটি অসভ্য ও অশিক্ষিতের দল— এমনটা বলেই কটাক্ষ করলেন খাদ্যমন্ত্রী। ২০২১ সালে আমরা উপড়ে ফেলে দেবো, এই দলটিকে ইছামতির জলে ভাসিয়ে দেব। এরা তো সব চোর, বাজারে বাজারে তোলা তুলে বেড়াচ্ছে। মেরে হাত ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া উচিত। মঙ্গলবার সকালে হাবড়া থানার হাটথুবা সমবায় ব্যাংকের আমানতকারীদের জমানো টাকা ফেরত দিতে এসে এমনটাই দাবি করলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক।

পাশাপাশি তিনি বলেন আমাদের কর্মীরা সব সময় মানুষের সঙ্গে রয়েছেন। সমস্ত অপারেটিভ ব্যাংকের যারা টাকা জমিয়েছেন তাদের টাকা ক্যাম্প করে আস্তে আস্তে তুলে দেওয়া হবে। আর আমরা যেটা কথা দেয়ই মানুষকে, সেটাই করে দেখাই। পাশাপাশি তিনি বলেন, বিভিন্ন জায়গায় যে বিজেপির কোপারেটিভ ব্যাংক গুলি রয়েছে সেখানে প্রচুর টাকা তছরুপ হয়েছে।

তিনি আরও বললেন, আমরা অতি শীঘ্রই সমস্ত বেআইনি সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করে মানুষের টাকা ফেরত দেব। প্রসঙ্গত, হাবরা হাটথুবা বিভিন্ন দপ্তরে ঘুরে বেড়িয়েছেন গ্রাহকরা। ডেপুটেশন দিয়েছেন বিভিন্ন দপ্তরে কিন্তু কাজ না হওয়ায় খাদ্যমন্ত্রীর দ্বারস্থ হন গ্রাহকেরা। এরপর রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রীর আশ্বাসে অবশেষে মঙ্গলবার থেকে চেক প্রদান অনুষ্ঠান শুরু হয় সমবায় ব্যাংক গুলো থেকে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: