হালিসহরের পর এবারে মিনি টর্নেডোর প্রভাব অশোকনগরে

HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, ওয়েদার রিপোর্ট ঃ গত বছর বিধ্বংসী সুপার সাইক্লোন আম্ফানের পরে ২১শে বাংলা-ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়লো শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস। যার দাপট এখনো থামছে না। যদিও ভু-বিজ্ঞানীদের মতে আম্ফানের মত ইয়াসের চোখই তৈরি হয়েনি। তবে জলভাগের এই ঘূর্ণিঝড় এর মাঝে গত বুধবার হলদীয়া থেকে হালিসহর এলাকায় দেখা গেল স্থলভাগের ঘূর্ণিঝড় টর্নেডোকে। আর আজ ফের বাংলায় তাণ্ডব চালাল সেই টর্নেডোর বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড়। তবে এবারের ঘটনাস্থল উত্তর ২৪ পরগনার অশোকনগর থানার অন্তর্গত গুমা শক্তিনগর এলাকায়।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে কয়েক মিনিটের টর্নেডোর তাণ্ডবে বেশ কয়েকটি বাড়ি পুরোপুরি ভেঙে যায়। প্রচন্ড হাওয়ার দাপটে কিছু বাড়ির টিনের চালও উড়ে গিয়েছে বলে সুত্রের খবর। যার ফলে সেই এলাকার বহু মানুষ ঘরছাড়া। এদিন সকালে, অশোকনগর থানার অন্তর্গত জিরাট রোড সংলগ্ন এলাকা থেকে শুরু করে গুমার শক্তিনগর, ২৪ নম্বর রেলগেট ও খ্রিষ্টান পাড়া এলাকায় মিনি টর্নেডো তছনছ করে দিল। গত বুধবার হলদীয়া থেকে হালিশহরের মতোই এই ঘূর্ণিঝড় আবার দেখা গেল রাজ্যের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার অশোকনগর এলাকায়। 

গতকাল এই বিষয়ে নবান্ন থেকে সতর্কবার্তা জারি করে ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি আরও বলেন যে, ভরা কোটালের ফলে অতিরিক্ত জলচ্ছাসে আজ সারা দিন একাধিক জায়গায় জল প্লাবন দেখা যেতে পারে। সাথে জায়গায় জায়গায় বিক্ষিপ্ত ভাবে টর্নেডোর পূর্বাভাসও দেন। যার শুরু এদিন সকালে দেখা গেল উত্তর ২৪ পরগনার অশোক নগরে, নিমেষের মধ্যে প্রায় ২০ থেকে ৩০টি বাড়ির চাল হাওয়ায় উড়িয়ে নিয়ে যায়। বিধ্বস্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান নব নির্বাচিত বিধায়ক নারায়ণ গোস্বামী ও জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ রেহেনা খাতুন।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: