Tue. Feb 25th, 2020

কর্মযোগী স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে পালিত হলো রক্তদান শিবিরের মত এক সামাজিক অনুষ্ঠান

HnExpress ১৩ই জানুয়ারী, নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসাত ঃ ২০১৩ থেকে ২০২০, প্রায় ৭ বছর ধরে ধারাবাহিক ভাবে আর্ত নিপীড়িত দরিদ্রদের সাহায্যার্থে ও কল্যাণার্থে স্বতঃস্ফূর্ত উদ্যোগ নিয়ে একের পর এক সামাজিক কাজ করে চলেছে বারাসাত মানব কল্যাণ ওয়েলফেয়ার সোসাইটি বা BMWS। আর তারই মধ্যে উল্লেখযোগ্য কর্মকাণ্ড হলো “রক্ত দান, মহৎ দান “। গত ১২ই জানুয়ারী বারাসাতের সংগঠনী ক্লাব ময়দানে কর্মযোগী স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে পালিত হলো সেই রক্তদান শিবির, তৎসহ চক্ষু পরিক্ষা, স্বাস্থ্য শিবির ও নানাবিধ সামাজিক কর্মসূচি।এটা ছিল ষষ্ঠতম বর্ষের বাৎসরিক রক্তদান শিবির। এছাড়াও এদিন এলাকার পিছিয়ে পড়া বহু ছাত্র ছাত্রীদের হাতে তুলে দেওয়া হয় পাঠ্য পুস্তক ও প্রয়োজনীয় উপকরণ, এবং ওইদিনই বারাসাত রেল স্টেশনের ১নং প্ল্যাটফর্মের সমস্ত দুঃস্থ ক্ষুদার্থদের হাতে পৌঁছে দেওয়া হয় একটি করে মধ্যাহ্ন ভোজনের প্যাকেট ও শীতবস্ত্র। অনুষ্ঠানের দিন সকালে শুরুতেই সংঘের পতাকা উত্তোলন ও উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশিত হয়।অতঃপর কর্মযোগী স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৭ তম জন্মদিবস এর প্রাক্কালে তাঁর প্রতিকৃতিতে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি এক্স ফুটবলার সায়েদ রহিম নবী মাল্যদান ও প্রদীপ প্রজ্জলনের মধ্য দিয়ে উদ্বোধনের শুভ সুচনা করেন। এছাড়াও এদিন উপস্থিত ছিলেন ফুটবলার বাবলু ওঁরাও, লেখক পলাশ পোদ্দার প্রমুখ। সংগঠনের পক্ষ থেকে সম্পাদক সৌমেন ঘোষ বললেন যে, আমরা বিগত ৭ বছর ধরে এই সমাজসেবা মূলক কাজের সাথে যুক্ত। আর BMWS এর সংগৃহীত অর্থের দ্বারাই আমরা সারা বছর কিছু না কিছু সামাজিক সচেতনতা বা সাহায্যার্থে কাজ করে চলেছি।তিনি আরও বললেন, দরিদ্র ছাত্র ছাত্রীদের জন্য এডুকেশন হেল্প, অসহায় অসুস্থ মানুষের চিকিৎসার ব্যবস্থা, কোনো দরিদ্র পরিবারের মেয়ের বিবাহ কিংবা কোনো পরিবার বা পরিজন বিহীন বৃদ্ধ -বৃদ্ধার পাশে থেকে তাঁর দেখাশোনার ব্যবস্থা থেকে শুরু করে এলাকার ষাটোর্ধ মানুষকে যথাসাধ্য দিয়ে পাশে থাকার চেষ্টা করে চলেছে আমাদের সংগঠন। ইচ্ছে যে আগামীতে আরও বেশি করে, আরও নতুন কিছু ভাবে সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষ, আর্ত নিপীড়িত মানুষ বা যেকোনো অসহায় মানুষের জন্য নিজেদের আত্মনিয়োগ করতে পারি।আর যেকোনো বিপদে যেকোনো সময় যেন আমার, আপনার, সবার BMWS বা বারাসাত মানব কল্যাণ ওয়েলফেয়ার সোসাইটি যেন অতন্দ্র প্রহরীর ন্যায় সদা সজাগ থাকতে পারে সাধ্যমতো সাহায্য করার জন্য। এটাই আমাদের নতুন বছর ২০২০’র অঙ্গীকার। আর আমাদের স্লোগানই হলো, “সবার সাথে, সবার পাশে”। অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকল অতিথিবৃন্দকে অনুষ্ঠান মঞ্চে মোমেন্টো, পুষ্পস্তবক দিয়ে ও ব্যাজ পরিয়ে সম্মানিত করা হয়। এদিন প্রায় ৯০-৯৫ জন রক্তদাতা রক্তদান করেন। এই মহতী উদ্যোগে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়ে ছিলেন মানিকতলার সেন্ট্রাল ব্ল্যাড ব্যাঙ্ক।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: