অবশেষে বিধ্বংসী আগুন নিভলেও খোঁজ মেলেনি ৪ শ্রমিকের, উদ্বেগ বাড়ছে পরিবারের

HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউ ব্যারাকপুর ঃ প্রায় তিনদিন সময় অতিক্রান্ত হওয়ার পরে বিলকান্দার গেঞ্জি কারখানায় আগুন নিয়ন্ত্রণে এলো। যদিও কারখানার ভিতর থেকে এখনো ধোঁয়া বের হচ্ছে। তবে এত কিছুর পরেও খোঁজ মেলেনি চার শ্রমিকের। তাদের সন্ধানে এদিন ড্রোন উড়িয়ে খোঁজ খবর চলবে বলে জানা গেছে। ফলে উদ্বেগ বাড়ছে শ্রমিকের পরিবারের। বুধবার গভীর রাতে হঠাৎ করেই বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড ঘটে যায় নিউ ব্যারাকপুরের বিলকান্দা এলাকার একটি গেঞ্জি কারখানায়।

মুহূর্তে লেলিহান অগ্নিশিখা গ্রাস করে পাশের একটি বেসরকারি হাসপাতালের ওষুধের গুদামকে। দমকল সুত্রে জানা গেছে, সেই ওষুধের গুদামে প্রচুর পরিমাণে অ্যালকোহল, বাচ্চাদের ডায়পার মজুত ছিল। যার ফলেই আশেপাশে আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পরে এবং পর পর বেশ কয়েকটি গ্যাস সিলিন্ডারও ফাটতে শুরু করে। যদিও জীবন বাজি রেখে দমকল বাহিনী সেই আগুন নেভানোর কাজ করে চলে।

উপস্থিত দমকলের ২৪টি ইঞ্জিন দিয়েও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে রীতিমতো হিমসিম খেয়ে যায় দমকলকর্মীরা। ফলে নামানো হয় ফায়ার ফাইটার রোবটও। সাথেই পাশের এক জলাশয় থেকেও আগুন নেভানোর কাজ করা হয়। কিন্তু তা স্বত্তেও আগুন কিছুতেই আয়ত্তে আসছিল না। দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু মধ্যরাত পর্যন্ত নিজে দাঁড়িয়ে থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ তদারকি করেন।

কিন্তু এদিন রাতে হঠাৎই এমন বিধ্বংসী আগুন লাগায় কারখানার মধ্যে থাকা চারজন শ্রমিক আটকে যান। তিন দিন অতিবাহিত হয়ে যাওয়ার পরেও তাঁদের এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। সুত্রের খবর, শনিবার সকালে দমকল, পুলিস ও পূর্ত দপ্তরের আধিকারিকদের উপস্থিতিতে ড্রোন উড়িয়ে খোঁজ চালানো হবে নিখোঁজ ৪ জন শ্রমিকের।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: