সাইলেন্ট কিলার পার্থেনিয়াম গাছে ছেয়ে গেছে গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল চত্বর

HnExpress পল মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুর ঃ দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর মহকুমার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল চত্বর জুড়ে ছেয়ে গেছে সাইলেন্ট কিলার বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছে। হাসপাতালের স্বাস্থ্য দপ্তরের ভেতরে এই বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছ থাকায় জোড় জল্পনা শুরু হয়েছে গঙ্গারামপুর এর হাসপাতাল জুড়ে। গঙ্গারামপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল ও গঙ্গারামপুর মহকুমা হাসপাতালের সামনে ও পেছনে পার্থেনিয়াম গাছে ছেয়ে গেছে। বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছ হাসপাতাল জুড়ে বিরাজ করলেও নজরে নেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের।

বিষাক্ত পার্থেনিয়াম ফুলের রেনু বাতাসে উড়তে থাকলে এলার্জি, এগজিমা ও শাসকষ্টের মতো নানান রোগ ও সমস্যা হয় তা মোটের উপর সকলের জানা। কিন্তু খোদ হাসপাতাল চত্বরে এই সাইলেন্ট কিলার পার্থেনিয়াম গাছ থাকায় রুগীর পরিবারের লোকেরা যেমনি ক্ষোভে ফুঁসছেন পাশাপাশি এতে করে নানান রোগের আশংকা করছেন। হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে আসা রুগীর এক পরিজন পিন্টু সরকার বললেন, গঙ্গারামপুর এর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল চত্বরে ছেয়ে গেছে এক ধরনের বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছে।

গঙ্গারামপুর মহকুমা হাসপাতালে গর্ভবতী মহিলারা ভর্তি হন, পার্থেনিয়ামের বিষাক্ত রেনু থেকে নবজাত শিশুদেরও ক্ষতির যেমন সম্ভবনা রয়েছে, তেমনি প্রবলভাবে রয়েছে বয়স্কদের শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যা। অতএব হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহন করে সাইলেন্ট কিলার বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছ কেটে ফেলে হাসপাতাল চত্বর সুরক্ষিত করা উচিত।

আপাতত কবে এই বিষাক্ত পার্থেনিয়াম গাছ কেটে হাসপাতাল চত্বর নির্মূল করা হবে তারই অপেক্ষায় রুগীর পরিবারের লোকেরা। তারই পাশাপাশি কার্যত এই গাছের ছড়ানো রোগের আশংকায় দিন গুজরান করছেন হাসপাতালে ভর্তি রুগী সহ তাদের পরিজনেরা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: