শহীদ বীর জওয়ানদের শ্রদ্ধা জানিয়ে দেশ, রাজ্য ও জেলা জুড়ে মৌন মিছিল সহ নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় এখন সর্বত্র

HnExpress পল মৈত্র, দক্ষিণ দিনাজপুর : গত বৃহস্পতিবার বিকেলে কাশ্মীরের পুলয়ামাতে জইশ-ঈ-মহম্মদ জঙ্গি সংগঠনের সন্ত্রাসবাদীরা কাপুরুষের মতন যেভাবে ভারতের ৫৪ নং সিআরপিএফ জওয়ান ব্যাটেলিয়নের প্রায় ৪৫ জন কে নৃশংসতার সাথে হত্যা করেছে, সেই ঘটনাকে মানতে পারেনি সারা দেশবাসী। এদিন তারই প্রতিবাদে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা জুড়ে সর্বত্র বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি জানিয়ে দফায় দফায় বিভিন্ন জায়গায় মৌনমিছিল ও মোমবাতি মিছিল বের হয়। আবার কিছু কিছু জায়গায় পাকিস্তানের পতাকা পুড়িয়েও প্রতিবাদ জানানো হয়। এই মিছিল গুলিতে কোনরকম রাজনীতি বা ধর্মের রেশ পড়তে দেননি উপস্থিত সাধারণ ভারতীয় নাগরিকরা। পাকিস্তান মুর্দাবাদ, পাকিস্তান মুর্দাবাদ, এই ধ্বনিতে মাটি কেঁপে উঠেছিল যেমন, ঠিক তার পাশাপাশি বীর শহীদ জওয়ান অমর রহে, ভারত মাতা কি জয়, জয় হিন্দ, জয় জওয়ান ধ্বনিতেক সর্বত্র কেঁপে উঠেছিল।

ঠিক এই মর্মে যে, পাকিস্তান তুমি হুঁশিয়ার, সাবধান হয়ে যাও নইলে তোমার বিপদ আছে। এদিন দক্ষিন দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর শপিং প্লাজা পদতল থেকে সারা শহর জুড়ে প্রায় সহস্রাধিক সাধারণ নাগরিকরা মৌন মিছিল করেন। এই মিছিলে ছাত্র থেকে শুরু করে বিভিন্ন মহলের প্রায় সকলেই উপস্থিত ছিলেন। এই মিছিলের উদ্যোক্তা হিসেবে ছিলেন বৃন্দাবন ঘোষ, সৌরভ মল্লিক, শুভ ঘোষ, অমিত ঘোষ, সৌরভ বসাক, সুব্রত সুত্রধর, অয়ন বিশ্বাস, বিপ্লব পাল সহ আরো অন্যান্যরা। এদিন এই মৌন মিছিল গঙ্গারামপুর চৌমাথার ফোয়ার পাদদেশে মোমবাতি জানিলে শহীদ বীর জওয়ানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপর উপস্থিত সকলে বদল নয় বদলা চাই শ্লোগান দিতে থাকে।

ঠিক তার পাশাপাশি সকলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে পাকিস্তানকে যোগ্য জবাব দেওয়ার জন্য অনুরোধ করে। উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার শ্রীনগর-জম্মু হাইওয়ে দিয়ে সিআরপিএফ জওয়ানদের ৫৪ নম্বর ব্যাটেলিয়নের কনভয় যাচ্ছিল। ২৫০০ জওয়ানকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এই কনভয়েই বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। প্রথমে সেই কনভয়ে আইইডি বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা। সেনা সূত্রে খবর, বিস্ফোরক বোঝাই একটি গাড়ি গিয়ে ধাক্কা মারে সিআরপিএফ ট্রাকে। প্রায় ৩৫০ কেজি বিস্ফোরক ছিল ওই ট্রাকে। জানা গিয়েছে, বিস্ফোরক ভর্তি গাড়ি চালাচ্ছিল জইশ জঙ্গি আদিল আহমেদ। বছর দেড়েক আগে জঙ্গি সংগঠনে যোগ দিয়েছিল আদিল। এই বিস্ফোরণেই নিহত হন প্রায় ৪৫ জওয়ান। তারপর ছত্রভঙ্গ জওয়ানদের উপর গুলিবৃষ্টি করতে থাকে জঙ্গিরা। এই হামলার দায় নিয়ে ভিডিও প্রকাশ করেছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ।

গোয়েন্দাদের অনুমান, সম্ভবত পুলওয়ামায় সেনা কনভয়ে আত্মঘাতী হামলা চালানোর আগে এই ভিডিওটি ক্যামেরাবন্দি করেছে জঙ্গিরা। সারা দেশবাসীর সাথে দক্ষিন দিনাজপুর জেলাবাসীরাও ক্ষোভে ফুঁসছেন তাদের একটাই কথা আর নয় অনেক হয়েছে এবার কোন রেয়াত নয়। এদিন এই মিছিলে উপস্থিত দেশপ্রেমী সাধারণ জনগনের উপস্থিত ছিল লক্ষণীয়, তাদের কন্ঠে ধ্বনিত জয় হিন্দ বন্দেমাতারম জয় জওয়ানের মতন শ্লোক সবার ভেতরে দেশ প্রেমের যেমন অনুপ্রেরনা জন্মিয়েছে পাশাপাশি শহীদ বীর জওয়ানদের পরিবার ও সারা দেশবাসীর হয়ে তাদের ক্ষোভ যে এবার পাকিস্তানের উপর ভারী পড়বে তা বলাই বাহুল্য।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: