শতবর্ষের প্রৌঢ়াকেও ধর্ষিতা হতে হল বছর ২০-র যুবকের হাতে!

HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, চাকদহ : শতবর্ষের এক প্রৌঢ়াকে দৈহিক নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা অর্ঘ্য বিশ্বাস নামে এক যুবকর। তদন্তে নেমে আঁতকে উঠেছেন নদীয়া জেলা পুলিশের চাকদহ থানার পুলিশ অফিসাররা। এই ঘটনা ঘটেছে নদীয়ান চাকদহ থানা এলাকার চাঁদুরিয়া ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের গঙ্গাপ্রসাদপুর গ্রামে। ওই প্রৌঢ়ার ছেলের অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে চাকদহ থানার আইসি জ্যোতির্ময় বসু ওই কীর্তিমান অর্ঘ্য বিশ্বাসকে গ্রেফতার করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা খবর, রাজ্যে এই প্রথম শতবর্ষের কোনও প্রৌঢ়া ধর্ষিত হলেন। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনা গঙ্গাপ্রসাদপুর গ্রাম উত্তাল হয়ে উঠেছে। ছিছিক্কার পড়ে গিয়েছে সমগ্র এলাকায়।

ঘটনা সূত্রে জানা গেছে, অন্যান্য দিনের মতো ২২ অক্টোবর রাত ১০ টার মধ্যেই নাতি–নাতবৌ তাদের ঠাকুমাকে রাতের খাওয়ার খাইয়ে তাঁর ঘরে শুইয়ে দিয়েছিলেন। মাঝরাতে ঠাকুমার চিৎকারে ঘুম ভেঙে যায় নাতি–নাতবৌয়ের। তাঁরা ঠাকুরমার ঘরে এসে দেখতে পায়, ঠাকুরমার চৌকির নিচে লুকিয়ে রয়েছে এলাকারই বাসিন্দা সুশান্ত বিশ্বাসের ছেলের অর্ঘ্য বিশ্বাস। কিন্তু ততক্ষণে ঠাকুমা অর্ঘ্যের যৌন নির্যাতনে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তাঁরা ভাবেন, এলাকার ওই যুবক চুরি করতে ঠাকুরমার ঘরে ঢুকেছে। তাই তাঁরা ঠাকুরমার দিকে নজর না দিয়ে প্রতিবেশীদের ডেকে যুবককে তার বাবা সুশান্ত বিশ্বাস এর হাতে তুলে দেন। ভোরের আলো ফুটতে না ফুটতেই ওই প্রৌঢ়া আঘাত ও রক্তক্ষরণে অবসন্ন হয়ে পড়েন। ঠাকুমার পরনের শাড়ি ও বিছানায় রক্তারক্তির দৃশ্য দেখে নাতি-নাতবৌ হতভম্ব হয়ে যান। তাঁরা সঙ্গে সঙ্গে আশপাশের প্রতিবেশীদের তাঁদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে এসে ওই দৃশ্য দেখান। প্রতিবেশীরা ওই দৃশ্য দেখে সুশান্ত বিশ্বাসের বাড়িতে ছুটে গিয়ে ধর্ষক অর্ঘ্যকে খুঁজে থাকেন। ততক্ষণে অর্ঘ্য ফেরার হয়ে যায়। ওই বৃদ্ধার ছেলে সকালে ওই ন্যাক্কারজনক ধর্ষণের ঘটনার খবর পেয়ে বাড়িতে ছুটে আসেন। অভিযোগ পেয়ে চাকদহ থানার আইসি নিজে ঘটনার তদন্ত শুরু করেন। চিরুনি তল্লাশি চালিয়ে সুশান্ত বিশ্বাসের গুণধর ছেলে অর্ঘ্য বিশ্বাসকে সন্ধে নাগাদ এলাকার গোপন আস্তানা থেকে গ্রেপ্তার করেন। পুলিশি জেরায় ধৃত যুবক ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে।

এদিকে কল্যাণী জহরলাল নেহরু হাসপাতাল আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে ওই মহিলাকে। ওই বৃদ্ধার শরীরে ধর্ষণের চিহ্ন মিলেছে বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

ধৃত যুবককে বুধবার কল্যাণী আদালতে তোলা হয়। রানাঘাটের বৃদ্ধা সিস্টার, বর্ধমানের বৃদ্ধা ভবঘুরে, ধুপগুড়ি বৃদ্ধার পরে ফের বৃদ্ধা ধর্ষণের ঘটনা ঘটল রাজ্যে। স্বভাবতই চিন্তার ভাঁজ পড়েছে প্রশাসনের কপালে!

1 thought on “শতবর্ষের প্রৌঢ়াকেও ধর্ষিতা হতে হল বছর ২০-র যুবকের হাতে!

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: