রেনবোকে এক গোলে হারিয়ে জয়ের মুখ দেখল মহামেডান

HnExpress অলোক আচার্য, বারাসত : ছেলের কাছে বাবা পরাস্ত হওয়ার পর প্রতিপক্ষকে এক গোলে হারিয়ে জয়ের মুখ দেখল সাদা কালো শিবির। কলকাতা ফুটবল প্রিমিয়ার লিগের এ গ্রুপের খেলায় শনিবার বিকেলে বারাসত বিদ্যাসাগর ক্রীড়াঙ্গনে মুখোমুখি হয়েছিল মহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও নিউব্যারাকপুর রেনবো এসি। বেশ কিছু নামী খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া সাদা কালো শিবির রেনবোকে ১ গোলে হারিয়ে আত্মবিশ্বাস ফিরে পেল। বিশেষ করে গোলরক্ষক শৌভিকের দুরন্ত ভূমিকাকে তারিফ করতেই হবে। বেশ কিছু সহজ সুযোগ রেনবো অ্যাথলেটিক ক্লাব পেয়েছিল।

তা ব্যর্থ করতে সাদা কালো শিবির বড় ভূমিকা নিয়েছিল। এরিয়ানের কাছে ১-০ গোলে মহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব হেরে যাওয়ার পর রেনবোর মত শক্তিশালী দলের বিরুদ্ধে জয় লাভ করার পর মহামেডান তার আত্মবিশ্বাস ফিরে পেল। খেলার দ্বিতীয় পর্বে কিছুটা গুছিয়ে খেলার চেষ্টা করে মহামেডান স্পোর্টিং। প্রথম হাফে কোনো দলই গোল করতে না পারলেও দ্বিতীয় পর্বে ৭৫ মিনিটের মাথায় মহামেডানের ফরওয়ার্ড সুমিত দাশ অসাধারণ গোলটি করে জয়ের পথ মসৃণ করে দেয়। খেলার ম্যান অফ দ্য ম্যাচ হয়েছেন মহামেডানের ফরওয়ার্ড সুমিত দাশ। খেলার প্রথম থেকেই দুটি দলই মরিয়া হয়ে ছিল জেতার জন্য। নিউব্যারাকপুর শহর থেকে প্রচুর উৎসাহী দর্শক ভেঁপু, ঢোল, বাঁশি প্রভৃতি নিয়ে খেলার মাঠে উপস্থিত হয়েছিলেন। রেনবোর কোচ তড়িৎ ঘোষ জানালেন, চার বিদেশীকে নিয়ে নতুন দল ভালোই খেলছে। কিন্তু গোল করার কিছু সহজ সুযোগ নষ্ট করে ফেলেছে তারা। খেলার ছন্দপতনে বেশ কিছু গোল নষ্ট হয়েছে। তিনি খেলোয়াড়দের উদ্দেশ্যে বলেন, ভেঙে পড়লে চলবে না। বাকি আটটি ম্যাচে লিগ জয়ের স্বপ্নকে সামনে রেখে লড়ে যেতে হবে।

 

 

মহামেডান স্পোর্টিং ~ প্রিয়ন্ত, তন্ময়, প্রসেনজিৎ (কামরান ), সুমিত দাশ, তোরে, আরমার্ন্দো, রাহুল (কেপি), প্রসেনজিৎ পাল, সত্যম, রাকেশ, এমেকা।

 

রেনবো এসি ~ দিব্যেন্দু, ছট্টু, গডউইন (এরিক দানো), সুমন, সুজিত, সৌরভ, পল্টু, অভিজিৎ, পেন ওরজি, জুয়েল সানডে, সুজয় দত্ত।

 

রেফারি- দীপু রায়।

রেনবোর পরবর্তী খেলা ১৭ সেপ্টেম্বর এফসিআই এর বিরুদ্ধে, কল্যাণী স্টেডিয়ামে।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: