রামনগরে প্রাথমিক শিক্ষকদের সভায় শিশির অধিকারী

HnExpress অর্নব দেবনাথ, রামনগর : পূর্ব মেদিনীপুরে জেলার কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের তৃনমূল প্রার্থীর সমর্থনে রামনগর ও দিঘা চক্রের ওয়েস্ট বেঙ্গল প্রাইমারী টিচার্স এসোসিয়েশনের উদ্যোগে প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হল একটি রাজনৈতিক সভা। বৃহস্পতিবার রামনগরে একটি বেসরকারি সভাগৃহে আয়োজিত সভায় কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী শিশির অধিকারী বললেন, “তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিরোধীদের কোথাও তেমন ভোট প্রচার দেখা যাচ্ছে না।
আমাদের কর্মীরা পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় ২৫টি ব্লক ও ৫টি পুরসভায় একাই দাপিয়ে বেড়াচ্ছে।
শিশির অধিকারী আরও বললেন, পশ্চিমবঙ্গে বিরোধী বলে কোন পদার্থই নেই। আর গতকাল বাংলায় মোদী এসে মুখ্যমন্ত্রীকে উল্টোপাল্টা বলে গেছে।

তাই রাষ্ট্র নেতা হিসাবে মোদীকে মানায় না।
বাংলার শিক্ষা, কৃষ্টি, সংস্কৃতি মোদীর জানা নেই। তাঁর দাবি,” পশ্চিমবঙ্গে আমরা ৪২ শে ৪২টি আসনই পাবো। আর শুধু তাই নয়, অন্যান্য রাজ্যেও আমরা পাঁচ-সাতটা-দশটা আসনও পেতে পারি। এদিন সভায় ছিলেন তৃনমূলের জেলা কার্যকরী সভাপতি তথা রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরি,
রামনগর-১ ব্লক তৃণমূলের সভাপতি নিতাই চরণ সার, রামনগর-১ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শম্পা মহাপাত্র, ব্লকের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ কৌশিক বারিক, পূর্ব মেদিনীপুর জেলা যুব তৃণমূলের কার্যকরী সভাপতি সুপ্রকাশ গিরি, জেলা পরিষদ সদস্য অশোক বিশাল, দেপাল গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান অনুপ মাইতি, ব্লক যুব তৃণমূল সভাপতি বিশ্বরঞ্জন মিশ্র, সংগঠনের রামনগর চক্রের সভাপতি রাজকুমার রাজ, সম্পাদক মাণিক মাইতি, সংগঠনের দিঘা চক্রের নেতা সুরেশচন্দ্র পাত্র ও শান্তনু কুন্ডু প্রমুখ।

এ দিনের সভায় রামনগর ও দিঘা চক্রের কয়েকশো প্রাথমিক শিক্ষক-শিক্ষিকারা সামিল হন। তৃনমুলের জেলার কার্যকরী সভাপতি তথা রামনগরের বিধায়ক অখিল গিরি বললেন, মমতা ব্যানার্জীর হাত শক্ত করতেই আমাদের শিশির বাবুকে জয়ী করতে ঝাঁপাতে হবে। তিনি আরও বললেন, শুধু কাঁথি কিংবা এই জেলার তমলুক লোকসভাই আসন নয়। রাজ্যের ৪২টা আসনেই তৃনমুল প্রার্থীকে জয়ী করে মমতা ব্যানার্জীর নেতৃত্বে কেন্দ্রের ক্ষমতা থেকে নরেন্দ্র মোদীর জনবিরোধী সরকার তথা সাম্প্রদায়িক বিজেপি দলকে বঙ্গোপসাগরে ছুড়ে ফেলে দিতে হবে আমাদের একজোট হয়ে।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: