রাজ্যে সেনা নামানোর দাবি অভিনেত্রী কাঞ্চনার

HnExpress ২৮ মার্চ, অশোক সেনগুপ্ত, কলকাতা ঃ করোনা ভাইরাস থার্ড স্টেজের দোরগোড়ায়। চিন্তিত চিকিৎসক এবং সুধীসমাজ। শুধু হেলদোল নেই সমাজের একটা বড় অংশের। নানা অজুহাতে বাইরে ঘুরছেন। বুঝতে পারছেন না এর ভয়াবহ পরিণাম। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে সেনা নামানোর দাবি তুললেন অভিনেত্রী কাঞ্চনা মৈত্র।

 

লকডাউন অমান্য করে বাইরে ক্রমাগত সমাবেশের প্রেক্ষিতে এবার সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় হচ্ছে। এ নিয়ে ক’দিন ধরেই বহু মানুষ বাকিদের সচেতন করার চেষ্টা করছেন ছোট পর্দা ও সামাজিক মাধ্যমে। শনিবার বিকেলে ফেসবুকে কাঞ্চনা পোস্ট করেছেন ‘কলকাতার কিছু এলাকায় সেনা নামানো হোক। না হলে লকডাউন অনন্ত কাল ধরে চলবে।’

 

 

৪ ঘণ্টা আগে এই পোস্টের প্রেক্ষিতে ইতিমধ্যে লাইক, শেয়ার এবং মন্তব্য হয়েছে যথাক্রমে ১৫৭, ৬ ও ২৯। অভিজ্ঞ সাংবাদিক উত্তরবঙ্গ সংবাদের পুলকেশ ঘোষ বেসব্রিজে হেমন্ত বসু নিয়ন্ত্রিত বাজারের ভিড়ের ভিডিও তুলেছেন। ফেসবুকে বিশদ দেখাচ্ছেন কীভাবে লকডাউন ভেঙে ভিড় জমিয়েছেন ক্রেতারা।

 

 

আর এক সাংবাদিক একটি বাংলা দৈনিকের চিফ রিপোর্টার সৌগত মন্ডল বেশ কটি পোস্ট করেছেন ফেসবুকে। লিখেছেন, “Social Distancing in Bidyadharpur (Sonarpur) Station Market Today Morning. রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এক ধাক্কায় ১০ থেকে বেড়ে ১৫ জন হওয়ার পরেও সতর্ক না হলে আর কবে হবে? সোনারপুর এলাকায় দক্ষিন চব্বিশ পরগনায় এই ধরনের ছবি দেখলে সঙ্গে সঙ্গে প্রশাসনকে জানান এবং নিজেরাও নিষেধ করুন নিজেদের স্বার্থে।” কর্তব্যরত পুলিশের ক’টি নম্বরেরও উল্লেখ করেছেন— District Control Room 1800-325-2020, Other Numbers:
033-24795029, 033-24795030‘
033-24795009, 033-24501394

 

 

অপর একটি সচিত্র পোস্টে তিনি লিখেছেন, “লকডাউন অমান্য করে রাস্তায় বেরোলে এভাবেই গণ্ডি কেটে নির্দিষ্ট দূরত্বে সারাদিন বসিয়ে রাখার শাস্তি ফর্মুলা বেশ মজাদার!” আরও একটি পোষ্টে সৌগত লিখেছেন, “লকডাউন চলাকালীন জরুরী কারণে বাড়ি থেকে বেরোতে হলে এভাবে করোনা পাস অনলাইনে আবেদন করে তারপরে বেরোবেন।“

 

 

আয়ুর্বেদ চিকিৎষক সুমিত সুর ছবি সহ লিখেছেন,“চলছে করোনা পুজো। স্থান— পদুয়া, পাত্রসায়ের, বাঁকুড়া, গিয়ে বলতেই সবাই সরে সরে বসে পড়ল।। একজন তো বলেই ফেলল “ঠাকুর আগে না মানুষ আগে?” “দেবাশিষ মৈত্র মিত্র একটি পোস্টে লিখেছেন, “আমার মনে হয় অবিলম্বে সর্বত্র ১৪৪ ধারা জারি করা উচিত।“ এতেও বিস্তর সমর্থন।

 

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: