অসহায় অনাথ শিশুদের পাশে দাঁড়ালো “মধ্যমগ্রাম আমার তোমার” সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ

HnExpress অলোক আচার্য, মধ্যমগ্রাম : মধ্যমগ্রাম আমার তোমার সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ, ‘কথায় নয় কাজে আছি’-। এটি ফেসবুক গ্রুপের সমধিক পরিচিত নাম। সমাজে অসহায় মানুষের জন্য কিছু করা, তাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর লক্ষ্যকেই সামনে রেখে ২০১৮ সালের ২৪ জানুয়ারি এই ফেসবুক গ্রুপের পথ চলা শুরু হয়। আর তারই প্রায় প্রতি মাস দুয়েক অন্তর হওয়া বিভিন্ন ধরনের সেবামূলক কর্মসূচির মধ্যে আজ রবিবার মধ্যমগ্রামের বাদু মেইন রোডের অন্তর্ভুক্ত কাঠোর খেলাঘরের মৈয়ত্রী দেবীর আশ্রমের অসহায় অনাথ শিশুনিবাস ও শিক্ষাকেন্দ্রের শতাধিক শিশু-কিশোরদের পাশে দাড়াল তাঁরা।

আজ তাদের সাথে সারাদিন বিভিন্ন সাংস্কৃতিক কর্মসৃচী, বসে আঁকো প্রতিযোগিতা ও সকাল দুপুর মিলিয়ে দ্বিপ্রাহরিক আহারের সুব্যবস্থা সহযোগে কাঁচি কাঁচাদের নিয়ে কলকল রবে আনন্দ উপভোগে করলেন এই সোশ্যাল পেজের কর্মকর্তারা। ছোট থেকে বড় অসহায় অনাথ শিশুদের মুখে হাসি ফোটাল ফেসবুক গ্রুপের সদস্যারা। এই গ্রুপে গোটা বারাসাত, মধ্যমগ্রাম সহ সারা দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ১৬ হাজার সক্রিয় সদস্য-সদস্যা রয়েছেন। বিভিন্ন পেশার মানুষেই এই গ্রুপে সদস্য হিসেবে নিযুক্ত হতে পেরে নিজেদের ধন্য মনে করছেন, যদিও এটি একটি সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান।

আর ইতিমধ্যেই, মানে গতবছরের ডিসেম্বর মাসে নিউবারাকপুর, মধ্যমগ্রাম এবং বারাসাত অঞ্চলের ফুটপাথের অসহায় শিশু থেকে বৃদ্ধ বৃদ্ধাদের শীতবস্ত্র এবং চলতি বছরের জানুয়ারিতে মধ্যমগ্রামের কালিমন্দিরের দুঃস্হ শিশুদের কম্বল ও খাবারের প্যাকেট তুলে দিয়েছেন তাঁরা। এই ফেসবুক গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা সোনালি চৌধুরী সহ সুরজিত চৌধুরী, দেবপ্রীয় সেনগুপ্ত, তন্ময় দে এবং সৌমেন পাল হাইলাইট নিউজ এক্সপ্রেস এর সংবাদ প্রতিনিধিকে জানালেন, এতদিন যাবৎ হয়ে আসা তাদের কর্মকাণ্ডের ইতি বৃত্তান্ত।

প্রসঙ্গত উল্লেক্ষ্য যে, এই সোশ্যাল পেজটির প্রতিষ্ঠাতা একজন গৃহবধূ এবং পুরুষ সদস্য থাকলেও মূলত সর্বোপরি এই গ্রুপের সকল মেম্বারদের ভিতর মহিলা মেম্বারের সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি। কেউ গৃহিণী, তো কেউ কর্মরতা দশভুজা, আবার কেউ হ’য়ে তো বা নিতান্তই সাধারণ বা অবিবাহিতা কন্যাশ্রী। তবে আগামী দিনে বৃদ্ধাশ্রমের অসহায় আবাসিকদের নিয়েও কাজ করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানের সদস্য-সদস্যারা।

এদের একটি বিশেষ মানবিক দিক হলো, মধ্যমগ্রাম আব্দালপুরের এক দুঃস্থ অবিবাহিত ও সহায়সম্বলহীন মহিলার পাশে দাড়ানো এবং তাঁকে আর্থিক সহযোগিতায় অঙ্গীকারবদ্ব প্রতিষ্ঠানের সদস্যারা। আগামী বিভিন্ন সামাজিক কর্মসৃচীর মধ্যে রয়েছে, অসহায় দুস্থদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য শিবির এবং রক্তদান শিবিরের আয়োজন। পরিশেষে বলি, শুধু কথায় নয় কাজের মধ্যে দিয়েই যেন সমাজের প্রান্তিক ছেলেমেয়ে ও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো লক্ষ্যকে সামনে রেখে আগামী দিনে এগিয়ে যেতে পারে “মধ্যমগ্রাম আমার তোমার” ফেসবুক গ্রুপের সদস্যারা।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: