Mon. Dec 9th, 2019

মদের আসরে বচসা, ইট দিয়ে যুবকের মাথা থেঁতলে খুন করল এক হোটেল কর্মী

HnExpress জয় গুহ, কলকাতা ঃ মদের আসরে বচসা চলাকালীন এক যুবকের মাথায় ইট জাতীয় ভারী বস্তু দিয়ে আঘাত করেন সেই দোকানেরই এক কর্মী লালবাবু সদাই। ঘটনা স্থলেই মৃত্যু হয় ওই যুবকের।

মদের আসরকে কেন্দ্র করে বচসা আর তার জেড়ে খুন। দক্ষিণ কলকাতার শরত্‍ বসু রোডে পাথর দিয়ে যুবকের মাথা থেঁতলে দিল এক ব্যক্তি। বাসিন্দাদের অভিযোগ, পুলিসের নজর এড়িয়ে প্রতিরাতে ফুটপাথে মদের আসর বসত। সেখানেই খুনের ঘটনাটি ঘটে। এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। থমথমে ভাব গোটা এলাকায়।

শরত্‍ বসু রোড পোস্ট অফিসের লাগোয়া ফুটপাথ। সেখানেই সকালে চলে ভাতের হোটেল। আর রাত বাড়তেই এই ফুটপাতে বসে মদের আসর। এমনই অভিযোগ স্থানীয় বাসিন্দাদের। শনিবার ঝড়বৃষ্টির রাতেও ফুটপাতে বসে মদের আসর। সেখানেই হঠাৎ বচসা বেঁধে যায়। আচমকাই দোকানের কর্মী লালবাবু সদাইয়ের সঙ্গে বচসা বেঁধে যায় মনোজ বৈঠা নামে এক যুবকের।

অভিযোগ, বচসা চলাকালীন ওই যুবকের মাথায় ভারী কোনো বস্তু (মনে করা হচ্ছে ইট) দিয়ে আঘাত করেন দোকানের কর্মী লালবাবু সদাই। ভারী বস্তুর আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ওই যুবকের। শরত্‍ বসু রোড পোস্ট অফিসের গা দিয়ে চলে গিয়েছে রাজা বসন্ত রায় রোড। আরেকটু এগিয়ে গেলেই লেক রোড। দক্ষিণ কলকাতার অভিজাত এলাকাগুলির মধ্যে অন্যতম এই শরৎ বসু রোড এলাকা। সেখানে ফুটপাথে মদের আসরে খুন! এই ঘটনায় আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারা।

পুলিস অভিযুক্ত হোটেল কর্মী লালবাবু সদাইকে গ্রেফতার করেছে। ধৃতকে জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা গিয়েছে, মদ্যপানের পর ফুটপাথেই শুতে চেয়েছিল মনোজ বৈঠা নামে ওই যুবক। তাঁকে নিষেধ করতেই বচসা বেধে যায়। আর সে কারণেই নাকি এই খুন। তবে খুনের পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: