ব্রেকিং নিউজ ঃ অবশেষে সব প্রতিক্ষা ও উৎকন্ঠার অবসান ঘটিয়ে, ভারতের হাতে অভিনন্দনকে তুলে দিল পাকিস্তান

HnExpress অর্ণব দেবনাথ ঃ অবশেষে সব প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে, সবরকম অনিশ্চিত চিন্তাভাবনা, উৎকন্ঠার ঊর্দ্ধে গিয়ে অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতের বায়ুসেনার হাতে তুলে দিল পাকিস্তান সরকার। শুক্রবার বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ পাক সেনাদের একটি কনভয়ে করে ওয়াঘা সীমান্তে নিয়ে আসার কথা ছিল অভিনন্দনকে। কিন্তু সীমান্তের কাছাকাছি নিয়ে এসেও পাকিস্তানি সেনারা তাঁকে কিছু অফিসিয়ালি কাগজপত্রের কার্যক্রম বাকি আছে বলে টালবাহানা করে সময় পিছিয়ে দেয়।

কিন্তু অন্যদিকে, সেই সকাল থেকে ওয়াঘা সীমান্তে অভিনন্দনের পরিবারবর্গ সহ গোটা দেশ অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিল তাঁদের বীর যোদ্ধা, ভারত মায়ের বীর সন্তান এর সুস্থ শরীরে ফেরার প্রতিক্ষায়। কিন্তু ওপারে তখনও চলছে বীর সেনার হাজারো পরিক্ষা নিরীক্ষার অন্তিম পর্ব। সেখানে তাঁকে এক প্রস্থ মেডিক্যাল চেকআপ করানো হয়। এরপর মাত্র কয়েক মিনিট আগে, সম্ভাব্য ৯ঃ২২ মিনিট নাগাদ পাক রেঞ্জার্স-এর ‘বিটিং দ্য রিট্রিট’-এর পরই ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হল অভিনন্দনকে।
ভারতীয় সংবাদ সুত্র থেকে এই খবর জানা গিয়েছে। সব প্রতিক্ষার অবসান ঘটিয়ে মাত্র কয়েক মিনিট আগে ভারতের মাটিতে পা রাখলেন মিগ ২১ ভারতীয় যুদ্ধবিমান এর পাইলট উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান।

এদিন খুব সকালেই সীমান্তে পৌঁছে যান অভিনন্দনের বাবা এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা শোভা বর্তমান সহ তাঁর স্ত্রী। তবে সেনা সুত্রের খবর, এখনই বাড়ি ফিরতে পারবেন না উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। তাঁকে প্রথমেই নিয়ে যাওয়া হবে জলন্ধরের সেনা হাসপাতালে। সেখানে তাঁকে যথাযথ ভাবে চিকিৎসা করা হবে। পাকিস্তানে ৫৫ ঘঃ মানে প্রায় তিন দিন কাটিয়ে এসেছেন অভিনন্দন। সেখানে অভিনন্দনকে নির্যাতনও করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও তাঁর পায়ে গুলি লেগেছে বলে একটি ভিডিওতে সেই খবর ভাইরাল করা হয়েছিল।

একই সঙ্গে অভিনন্দনের শরীরের কোথাও কোন গোপন যন্ত্রাংশ প্রবেশ করিয়েও দেশে ফেরত দিতে পারে শত্রু দেশ। আর হয়ে তো সেই কারণেই মানসিক ও শারীরিক ভাবে সব রকম পরীক্ষা নীরিক্ষার করে অভিনন্দনকে সবল করে তোলার উদ্দেশ্যেই তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হবে সেনা হাসপাতালের ত্বত্তাবধানে। এদিকে, অভিনন্দনকে আজ মুক্তি দেওয়া হবে শুনে সারা দেশ জুড়ে মানুষের মধ্যে এক ভাষাহীন খুশির বাতাবরণ বইছে। ভারত মায়ের বীর সন্তান অভিনন্দন এর ফোটোকে সামনে রেখে তাঁর বিজয় অভিযান সেরে দেশে ফেরার সময়টাকে বিভিন্ন ভাবে অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে, আবার কোথাও বাজি পটকা ফাটিয়ে আনন্দ উৎসবের মধ্য দিয়ে উল্লাসে মেতে ওঠেছে সারাদেশ।

Leave a Reply

%d bloggers like this: