বিশ্বজিৎকে নিয়ে স্মরণীয় অনুষ্ঠান রবিবার

HnExpress সম্রাট গুপ্ত, কলকাতা : বাংলা সিনেমার ইতিহাসে এক জনই হলেন ‘মহানায়ক‘। তিনি হলেন উত্তমকুমার। বুধবার কলকাতায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে খোলা গলায় এই দাবি করলেন বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়। বলিউডে তাঁর ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর এ শহরে তাঁকে কেন্দ্র করে একটি বড় অনুষ্ঠান হবে। এ কথা ঘোষণা করতেই তাঁর এই সাংবাদিক সম্মেলন।

এদিন বিশ্বজিৎবাবু বলেন, “উত্তমকুমার চলে যাওয়ার এতদিন বাদেও তাঁর ছবি বাজারে চলে। বুড়ো থেকে বাচ্চা প্রায় সব বয়সের লোকেই দেখে। সত্যি তিনি ওয়ান অ্যান্ড ওনলি। অন্য যাঁরা নিজেদের মহানায়ক বলে দাবি করেন বা পরিচয় দেন, তাঁরা তারা আসলে দুর্বুদ্ধিতার পরিচয় দেন।“

বাংলা ছবির বর্তমান দুরবস্থা সম্পর্ক প্রসঙ্গে এদিন তিনি বললেন, “আজকাল বাংলা সিনেমার নামে যেটা হচ্ছে, সেটা মোটেও বাংলা ছবি নয়। সেটা নিতান্তই তেলুগু ভাষার কার্বন কপি। বাঙালি সারা জীবন ভাল জিনিস দেখতে চায়। অন্য ছবির বর্জ্য চায় না। আমাদের সময় রবীন্দ্রনাথ, শরৎচন্দ্র, তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের লেখা অবলম্বনে সিনেমা হত।”

বাঙালির মনের মধ্যে ঢুকতে পারলে বাংলা ছবি চলবেই বলে দাবি করেন বিশ্বজিৎবাবু। উদাহরণ হিসাবে তিনি তাঁর অভিনীত ‘বাবা তারকনাথ‘, ‘বেলাশেষে‘ প্রভৃতি ছবির নাম উল্লেখ করেন।

এদিনের অনুষ্ঠান সংযোজিকায় ছিলেন মৌমিতা কালী। ১৬ই প্রস্তাবিত ‘বিশ্বজিৎ লাইভ শো‘ হবে বিশৃব বাংলা কনভেনশন সেন্টারে। তাতে বলিউড-টলিউডের কিছু বিখ্যাত ব্যক্তিত্বের থাকার কথা। অনুষ্ঠানটি করার প্রধান ভূমিকা নিচ্ছেন সূর্য সিনহা ও স্মিতা সিনহা। এ দিনের সাংবাদিক সম্মেলনে তাঁরা বলেন, বিশ্বজিৎ একয়জনই হতে পারেন। যাকে ছোট্ট কথায় বলা যয় একম ও দ্বিতীয়ম।


Posted

in

, ,

by

Tags:

Comments

Leave a Reply