বিজেপির ১১৪ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করলো পুলিশ

HnExpress পল মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুর : দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা প্রশাসনিক ভবন ঘেরাও ও অবস্থান-বিক্ষোভের জন্য প্রশাসনিক অনুমতি নেওয়া হয়নি। তাই বিজেপির জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার, সাধারণ সম্পাদক বাপি সরকার সহ ১১৪ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল বালুরঘাট পুলিশ।
৬ ডিসেম্বর কোচবিহারের সিতাইয়ে দিলীপ ঘোষের উপর হামলার প্রতিবাদে সারা রাজ্যের পাশাপাশি বালুরঘাটে বিজেপির পক্ষ থেকে অবস্থান-বিক্ষোভ কর্মসূচি নেওয়া হয়। সেইমতো ৭ ডিসেম্বর মুখ্যমন্ত্রীর কুশপুতুল নিয়ে জেলা কার্যালয় থেকে বিজেপির প্রতিবাদ মিছিলটি বের হয়। জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে আসতেই বাধা দেন পুলিশ কর্মীরা। ঘটনায় ধস্তাধস্তি হয় পুলিশ ও বিজেপি কর্মীদের মধ্যে।

এরপরই বিজেপি’র কর্মীরা জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান-বিক্ষোভে বসে। প্রায় ঘণ্টাখানেক ধরে চলে অবস্থান। এরপরই এই কর্মসূচির জন্য পুলিশ-প্রশাসনের কাছ থেকে কোনওরকম অনুমতি নেওয়া হয়নি বলে জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার সহ ১১৪ জন বিজেপির কর্মী-সমর্থকের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে বালুরঘাট থানার পুলিশ। পুলিশের দায়ের করা এফআইআর কপিটি আজ হাতে পান জেলা সভাপতি শুভেন্দু সরকার।

এই বিষয়ে শুভেন্দুবাবু বলেন, বিজেপি রাজ্য সভাপতির উপর হামলার বিরুদ্ধে ৭ ডিসেম্বর বালুরঘাট মিউজ়িয়ামের সামনে অবস্থান কর্মসূচি নেওয়ার জন্য জেলা পুলিশ-প্রশাসনের কাছে অনুমতি চাওয়া হয়। তবে সেই অনুমতি দেওয়া হয়নি। তাই তাঁরা সেদিন শান্তিপূর্ণ ভাবেই প্রতিবাদ মিছিল বের করেন। জেলা প্রশাসনিক ভবনের সামনে আসতেই পুলিশ বাধা দেয়। পরে তাঁরা সেখানেই অবস্থান-বিক্ষোভে বসেন। আর এরপরই জানতে পারেন, আগে কোনও অনুমতি না নেওয়ায় তাঁদের ১১৪ জন নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছে। আরও মজার বিষয়, এফআইএর এ এমন অনেকের নাম আছে যাঁরা সেদিনের অবস্থান-বিক্ষোভের সময় ঘটনাস্থানেই ছিলেন না। তৃণমূলই এই নামের লিস্ট পুলিশকে দিয়েছে বলে তাঁর অভিযোগ।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার দেবাশিস নন্দী বলেন, বিনা অনুমতিতে অবস্থান-বিক্ষোভ করা হচ্ছিল। মাইক বাজানোর অনুমতিও নেওয়া ছিল না। তাই পুলিশের পক্ষ থেকে ১১৪ জনের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: