প্রথমবার মহিলা পরিচালিত দুর্গাপুজো গঙ্গারামপুরে, পুজো নিয়ে তাদের ব্যস্ততা তুঙ্গে

HnExpress পল মৈত্র, দক্ষিন দিনাজপুরঃ দেবী দুর্গার জীবন্ত অংশ নারীরা আর সেই দেবী দুর্গার আরাধনায় পাড়ার মহিলারা সম্মিলিত ভাবে দুর্গা পুজা করছেন। দক্ষিন দিনাজপুর জেলার গঙ্গারামপুর সাহা পাড়ার ইন্দ্রনারায়ানপুর বাজারপাড়া সার্বজনীন দুর্গাপুজো এই প্রথমবার মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে। পুজোটি নিজেদের খরচে করছেন বলে জানান সহকারী সভাপতি রানা দত্ত তিনি বলেন, আসলে আমারা উদ্যোগ নিলেও মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে, পুজো এইবার হচ্ছে।

পুজো করার প্রধান কারন আমাদের পাড়াতে বিশেষ করে দুর্গাপুজো হয়না তাই সবাই মিলে একটি মিটিং করে এবছর পুজোর সিধান্ত নিয়েছি যাতে পাড়ার সকলে মিলে পুজোতে আনন্দ করতে পারি পাশাপাশি পুজা প্যান্ডেল করছে জেলার সুপরিচিত বালুরঘাটের ভাই ডেকোরেটার লাইটে নানান আলোর রোশনায়ে সাজিয়ে তুলছে শ্যামাপ্রসাদ চৌধুরী। এইবার যেহেতু প্রথম পুজো তাই আনুমানিক ২ লক্ষ টাকা বাজেটের পুজো হচ্ছে তাছাড়া অষ্টমীর দিনে এলাকার সকল ও সর্বস্তর এর মানুষদের মিষ্টি মুখ করানোর একটি প্রোগ্রাম রেখেছি, প্রতিবছর আমারা আরো ভালোভাবে সাজিয়ে আরো বড় করে পুজোটি করবো তার সদইচ্ছা রয়েছে।

অন্যদিকে মহিলাদের পরিচালিত এই পুজো কমিটির প্রধান শিবানী সাহা জানান, শরতের আকাশে তুলোর ন্যায় মেঘের দোলা দিয়ে মা নৌকা করে বাপের বাড়ি পাড়ি দিচ্ছেন খুব আনন্দ হচ্ছে এই প্রথমবার আমরা মহিলারা পুজো করছি। পঞ্চমির দিন মাকে বোধন করে নেবো খুশির জোয়ারে ভাসবো কয়েকদিন মায়ের অংশ আমরা নারীরা রনং দেহী হয়ে এখন পুজো প্রস্তুতিতে ব্যাস্ত। ইন্দ্রনারায়ানপুর বাজারপাড়া সার্বজনীন দুর্গাপুজো কমিটির সভাপতি প্রল্লাদ কুমার আগারওয়াল, সহকারী সভাপতি রানা দত্ত, মহিলা সভাপতি শিবানী সাহা, গনেশ সাহা, অনিতা বিশ্বাস, সুজাতা রায়, সুদীপ্ত রায়, সঙ্গীতা আগারওয়াল, কোষাধ্যক্ষ কমল বিশ্বাস, সুজন বিশ্বাস সহ পুজো কমিটির সকলে দিন রাত এক করে দেবী দুর্গার আরাধনা ও বোধনে ব্যাস্ত। তাদের ব্যস্ততা এখন চোখে পড়ার মতন।

অন্যদিকে দেবী দুর্গার আরাধনায় সকলের ব্যাস্ততা তুঙ্গে। ভোরের শিশির ভেজা শিউলি ফুলের গন্ধে আর পাগল হাওয়াই কাশফুলের দোলানী সত্যি মনে শরতের শিহরন জাগাচ্ছে এই প্রকৃতি জানাচ্ছে আগমনীর বার্তা “মা আসছেন”।


by

Tags:

Comments

Leave a Reply