পুজোয় হইচই নিয়ে আসছেন দেব

HnExpress সম্রাট গুপ্ত, কলকাতা : ফূর্তি করতে গিয়ে যত রকম বিপদের সামনে পড়তে হতে পারে, তত রকম বিপদে পড়েছিলেন সবাই।“ নিজের পরিচালিত দ্বাদশ ছবি ’হইচই’ সম্পর্কে জানাতে গিয়ে এই মন্তব্য করলেন অনিকেত চট্টোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রোটারি সদনে এক সাংবাদিক সম্মেলন ডাকা হয়েছিল হইচই নিয়ে। সেখানে পর্দায় দেখানো হয় ছবিটির নানা খন্ডচিত্র। ছবির প্রযোজক হিসাবে লেখা গুরুপদ অধিকারীর নাম। তবে, দর্শকরা সবাই জানেন, ওটা হলেন দেব।

হইচই দেবের চার নম্বর প্রযোজনা। অনিকেতের সঙ্গে দ্বিতীয়। বৃহস্পতিবার দেব বলেন, পুজোয় যে ছবিগুলি মুক্তি পাবে, সবগুলিই দেখুন। আর যদি একটা দেখতে হয়, ‘হইচই’ দেখবেন। আপনাদের অবশ্যই ভাল লাগবে। বাজেট কত— এই প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে গেলেন তিনি।

‘হইচই‘-এর অন্যতম অভিনেতা শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় বলেন, “অনিকেতের ছবি সব সময়েই অন্যরকম। এই ছবির বিশেষত্ব হল, আমাকে দিয়ে ও নাচিয়েছে। বাবা যাদবকে এ কারণে অস্কার দেওয়া উচিত।“ বইয়ের বিষয়বস্তু জানতে চাইলে তিনি বলেন, “বিষয় হল লাগাতার হইচই। ব্যাস! এর চেয়ে বেশি বললে মজা চলে পাবে।“

ছবির সিংহভাগের শুটিং হয়েছে উজবেকিস্তানে। ২০১৬ সালে ওদেশে সস্ত্রীক বেড়াতে গিয়ে কীভাবে এই ছবির গল্পের প্লট মাথায় আসে, সাংবাদিকদের তা শোনান অনিকেত। বলেন, দেব, অপু (শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়), খরাজ মুখোপাধ্যায়, রজতাভ দত্ত— সবাই ফাটিয়ে অভিনয় করেছেন। ছবিতে আবার খরাজের নাকি দুটো বউ— মানসী আর কণীনিকা।

ছবিটির কলাকুশলীদের মুখরোচক খাবার দিয়ে সহযোগিতা করেছেন বিখ্যাত “মুখরোচক”  নামক খাবার প্রস্তুতকারক সংস্থা। যার কর্ণধার প্রণব চন্দ। যিনি এদিনের এই সাংবাদিক সম্মেলনের প্রধান ও অন্যতম উদ্যোক্তা। ছবি প্রযোজক, নির্দেশক, সকল কলাকুশলীসহ তিনি নিজেও এই ছবির বাণিজ্যিক সাফল্য নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী বলে জানিয়েছেন সংবাদ মাধ্যমকে। দর্শকের উদ্দেশ্যে প্রনব বাবুর বক্তব্য, ১২ই অক্টোবর ছবির শুভ মুক্তির দিন মুখরোচক খাবারের স্বাদ নিতে নিতে হইচই সহকারে একবার জমিয়ে ছবিটি অবশ্যই দেখুন আর বন্ধু বান্ধব – আত্মীয়স্বজনকেও দেখান।

ছবি : স্বরূপম চক্রবর্তী। 

1 thought on “পুজোয় হইচই নিয়ে আসছেন দেব

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: