টানটান উত্তেজনায় মোড়া আলোড়ন সৃষ্টিকারী নতুন চলচ্চিত্র “একটি রাত” এর শুভমুক্তি

HnExpress  নিজস্ব প্রতিবেদন : একজন পরিচালক তার পরবর্তী ছবির জন্য শুটিং লোকেশান খুঁজেতে যাচ্ছিলেন রেইকিতে। যেতে যেতে মাঝ রাস্তায় হঠাৎ তিনি দেখতে পান এক সুন্দরী তরুণীকে। সেই তরুণী তার কাছে লিফ্ট চান। পরিচালক তাকে তার গাড়িতে লিফ্ট দেন। এরপর চলে তাদের আলাপচারিতা। কথায় কথায় সেই তরুণী পরিচালককে জিজ্ঞাসা করে যে সে কি ধরণের ছবি তৈরি করেন? এর উত্তরে পরিচালক জানান যে তিনি সপরিবারের দেখার মত সিনেমা অর্থাৎ পরিবারিক সিনেমা তৈরি করেন। তরুণী পরিচালককে ভূতের সিনেমা তৈরি করার আগ্রহ প্রকাশ করলে তিনি জানান তার ভূতে বিশ্বাস নেই। তাই এ ধরণের সিনেমায় তিনি আগ্রহ পান না। এরপর তরুণী পরিচালককে পাঁচটি ভুতের গল্প শোনায় এবং তাদের মধ্যে চুক্তি হয় যে পরিচালক যদি ভয় পান তাহলে তিনি পরবর্তী সিনেমা ভূতেরই বানাবেন। কথা মতন পরিচালক পাঁচটি গল্প শোনেন। কিন্তু পাঁচটি গল্প শুনলেও তিনি কোন গল্পেই t ভয় পান না। এরপর আসে কাহিনীতে এক নতুন মোড়। রাস্তায় ঘটে যায় এক মারাত্মক দুর্ঘটনা। পরিচালক যখন গাড়ি থেকে নেমে সেই দুর্ঘটনাস্থলে যান তখন তিনি হতবাক হয়ে যান। তিনি এতক্ষণ সফরে যে তরুণীর সাথে কথা বলছিলেন তারই মৃতদেহ পরে রয়েছে ওই ঘটনাস্থলে। পাঁচটি গল্পে পাঁচটি ভিন্ন রহস্য এর এক অনন্য স্বাদ রয়েছে।

সম্প্রতি রাজারহাট নিউটাইনের কাছে নজরুলতীর্থে সম্পন্ন হল শুভাঞ্জন রায় এবং অজিতাভ বরাটের যুগ্ম পরিচালিত বাংলা চলচ্চিত্র “একটি রাত”-এর প্রিমিয়ার শো। শর্মিলা সাহা এবং অজিতাভ বরাট মিডিয়া প্রোডাকশন প্রযোজিত দেড় ঘন্টার এই ছবিটির প্রতিটি মুহূর্তে ঘিরে রয়েছে এক অনবদ্য সাসপেন্স-এর টানাপোড়ন। এই ছবিতে অভিনয় করেছেন নেহা, কিশানু , সিদ্ধার্থ, রাজীব অতনু, দেবাশীষ, রিঙ্কি, গার্গী, লোপামুদ্রা সহ প্রমুখ।

এদিন এই প্রশঙ্গে অভিনেত্রী নেহা সাহা জানান, খুব খুব ভালো লাগছে এমন একটা ভয়-উত্তেজনা-পারিবারিক গল্পে মোড়া ছবিতে অভিনয় করার সুযোগ পেয়ে। এটাই আমার প্রথম সিনেমা। সবার কাছ থেকে ভালো রেসপন্স পাচ্ছি, নায়িকা বা একজন উঠতি অভিনেত্রী হিসেবে এটা একটা বিশাল পাওনা।
তাই বলাই যেতে এবার পুজোয় সিনেমা প্রেমীদের মন জয় করবে সাসপেন্স থ্রিলার চলচ্চিত্র “একটি রাত”। এক কথায় টানটান উত্তেজনাময় এই সাসপেন্স থ্রিলারের ছবির প্রত্যেকের অভিনয়ই ছিল প্রশংসনীয়।

অনুষ্ঠানে এদিন উপস্থিত ছিলেন পরিচালক, প্রযোজক সহ “একটি রাত”এর কলাকুশলীরা। চমকে আর এক নক্ষত্র পরিচালক অজিতাভ বরাট। ছবি সম্পর্কে এই দুই যুগ্ম পরিচালক জানান, সিনেমাটি ঘিরে আমাদের অনেক প্রত্যাশা ছিল। অভিনেতা,অভিনেত্রী ছাড়াও এই সিনেমার পিছনে যারা আছে , তাদেরও একনিষ্ঠতায় আমরা এই কাজ করতে পেরেছি। একটা ভালো সিনেমা তৈরি করতে একটা ভালো টিম প্রয়োজন। আমাদের দায়িত্ব অনেক বেড়ে গেল।সকলকে ধন্যবাদ।

 

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: