নিউব্যারাকপুর থানা উৎসব সমন্বয় কমিটির শারদ সম্মান

HnExpress নিজস্ব প্রতিনিধি, নিউব্যারাকপুর : ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের অধীন নিউব্যারাকপুর থানা উৎসব সমন্বয় কমিটির বিচারক মন্ডলীর বিচারে শারদ সম্মান প্রাপক ক্লাব সংগঠন গুলির নাম ঘোষণা করে নিউব্যারাকপুর থানা নবমীর রাতে।

শহরাঞ্চলে শ্রেষ্ঠ প্রতিমার প্রথম স্থান অধিকার করে সতীন সেন নগর সার্বজনীন দুর্গোৎসব মহাজাতি পরিষদ, দ্বিতীয় বিদ্রোহী স্পোর্টিং ক্লাব এবং তৃতীয় পূর্বাঞ্চল সার্বজনীন দুর্গোৎসব কমিটি। মন্ডপ ও আলোকসজ্জার জন্য শ্রেষ্ঠ পুরস্কার পেল নবপল্লী এভারগ্রীণ ক্লাব, বিদ্রোহী স্পোর্টিং ক্লাব এবং পূর্বাচল ক্লাব। বিশেষ ভাবনায় শ্রেষ্ঠত্ব পুরস্কার অর্জন করে শিবাজী সংঘ (থিম নীলকন্ঠের আবর্তে),পল্লী উন্নয়ন সংঘ (রাজস্থানের মন্দির), দক্ষিণ মাসুন্দা পল্লী মঙ্গল সমিতি (জাতিভেদের উপর, শ্রেষ্ঠ ধর্ম মানবতা), বিশেষ সামাজিক ব্যবস্থাপনায় (পরিবেশ, সংস্কৃতি, সামাজিক) প্রথম স্থান বিদ্রোহী স্পোর্টিং ক্লাব, দ্বিতীয় শক্তি সংঘ, তৃতীয় খড়ের মাঠ মহিলা অধিবাসীবৃন্দ। সেরার সেরা শিরোপা পায় বিদ্রোহী স্পোর্টিং ক্লাব।

নিজস্ব চিত্র।

গ্রামাঞ্চলে প্রতিমার শ্রেষ্ঠত্ব পুরস্কার পায় লেনিনগড় সুভাষ সংঘ, তালবান্দা প্রগতি সঙ্ঘ, যুগবেড়িয়া যুবক সংঘ। মন্ডপ ও আলোক সজ্জার জন্য প্রথম পুরস্কার পেল যুগবেড়িয়া যুবক সংঘ, দ্বিতীয় অভিযাত্রী সংঘ নব কামারগাতি কলোনি, তৃতীয় – লেনিনগড় সুভাষ সংঘ। বিশেষ ভাবনায় শ্রেষ্ঠ পুরস্কার অর্জন করে অভিযাত্রী সংঘ নব কামারগাতি কলোনি। দ্বিতীয় – যুগবেড়িয়া যুবক সংঘ, তৃতীয় – লেনিনগড় সুভাষ সংঘ। সেরার সেরা শিরোপা পায় অভিযাত্রী সংঘ নব কামারগাতি কলোনি।

নিজস্ব চিত্র।

নিউব্যারাকপুর থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক রাজু মুখার্জি বলেন নিউব্যারাকপুর শহরের ৪৭ টি ও বিলকান্দা ১ ও ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের (আংশিক) ৭টি ক্লাব সংগঠনের দুর্গাপুজোর গ্রাম পঞ্চায়েতের বিচারকমন্ডলীর বিচারে শহরাঞ্চলে ১৩টি এবং গ্রামাঞ্চলের ১০ টি পুরস্কার প্রাপকদের নাম ঘোষণা করা হয় নবমীর দিন। আগামী বছর বিজয়ী ক্লাবগুলির হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হবে। এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রেখে ভালো ভাবে পুজো সম্পন্ন হয়েছে। নিরাপত্তা জোরদার করতে অতিরিক্ত পুলিশ, সিভিক ভলেন্টিয়ার নিয়োগ করা হয়েছে রাস্তার মোড়ে ও ক্লাব সংগঠনগুলির মন্ডপে। সুশৃঙ্খলভাবে সাজিরহাট ঘাটে প্রতিমা নিরঞ্জন করা হয়। বিচারকমন্ডলীর মধ্যে ছিলেন ঠাকুর শ্রী শ্রী সমীর ব্রহ্মচারী, ভাস্কর দেবব্রত দে, চৈতালী চন্দ, শ্যামল সিকদার, আর্কিটেকটর অনির্বাণ দত্ত, কবি ও সাংবাদিক শিখা দেব, অলোক আচার্য প্রমুখ। ব্যবস্থাপনায় থানার এএসআই সুব্রত গোস্বামী।

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: