জুয়া-মদের প্রতিবাদ করায় ফের আক্রান্ত যুবক 

HnExpress দেবাশিস রায়, হালিশহর : সপ্তাহখানেক ঘুরতে না ঘুরতে ফের জুয়া-মদের প্রতিবাদ করায় হালিশহরে আক্রান্ত হল যুবক রামপ্রসাদ দাস ওরফে রাজু। হালিশহর পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের সমাজ কল্যাণ সমিতি এলাকার ঘটনা। তিন মদ্যপের হাতে আক্রান্ত হন রাজু।

ছবিতে মূল অভিযুক্ত পরিমল ও উপপ্রধান

ঘটনা সূত্রে প্রকাশ, বৃহস্পতিবার, ৪ অক্টোবর সদ্য বাবা হওয়া রাজু হাসপাতাল থেকে স্ত্রী ও কন্যাসন্তানকে দেখে বাড়ি ফিরছিল। তার বাড়ির কাছেই পরিমল কুণ্ডু, শুভঙ্কর ও প্রিতম বসে মদ খাচ্ছিল। রাত সাড়ে আটটা নাগাদ বাড়ি ঢোকার মুখে এদৃশ্য দেখে রাজু প্রতিবাদ জানায়। বিনিময়ে তার কপালে জোটে বেদম মার। ওই তিন মদ্যপ রামুকে ফেলে পেটায়। এমনকি পরিমল রিভলবারের বাঁট দিয়ে তার মাথায় আঘাতও করে। রক্তাক্ত অবস্থায় কয়েকজন প্রতিবেশী রাজুকে নিয়ে যায় বীজপুর থানায়। তিন অভিযুক্তর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ রাজুকে কল্যাণীর জেএনএম হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠায়। হাসপাতাল সূত্রে খবর, রাজুর মাথায় লাগা আঘাত গুরুতর। তার ঘনঘন বমি হচ্ছে। এঘটনায় হালিশহরে ফের আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। উল্লেখ্য, প্রধান অভিযুক্ত পরিমল পুরসভার উপপ্রধান দেবাশিস দত্ত ওরফে রাজার ঘনিষ্ঠ সহযোগী।
প্রসঙ্গত, গত ২১ সেপ্টেম্বর হালিশহর ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে জুয়া খেলার প্রতিবাদ করায় খুন হয় পিন্টু নামে এক যুবক। তার ১০-১২ দিনের মাথায় আজকের এঘটনায় শঙ্কিত হালিশহরের মানুষ। তাদের অভিযোগ, একশ্রণির তৃণমূল কংগ্রেস নেতাদের মদতে ক্রমেই দুর্বিষহ হয়ে উঠছে জনজীবন। পুলিশ প্রশাসন অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারও করছে। কিন্তু পরদিন ওই নেতাদের দৌলতে জামিনে ছাড়া পেয়ে কলার উল্টে এলাকায় ঘোরাফেরা করছে অভিযুক্তরা। কবে সাধারণ মানুষ মুক্তি পাবেন এথেকে তা সকলেরই অজানা!

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: