জাতীয় সুরক্ষার স্বার্থে রাজনীতি বন্ধ করার দাবি জানালো ভারতের জাতীয় কংগ্রেস

HnExpress নিউজ ডেক্স, ভাস্কর বাগচি ঃ কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী বললেন, “আমাদের সেনার বলিদানকে ব্যবহার করছে কেন্দ্রের শাসকদল৷’’ গতকাল সকালে দিল্লিতে বিজেপি বিরোধী সাংবাদিক বৈঠকের শেষে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এমনটাই মন্তব্য করলেন। কিন্তু রাহুলের ওই মন্তব্যের পরেই ট্যুইটারে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বললেন, ‘‘পুলওয়ামার ঘটনাটা বাস্তব৷ আর আমরা সবাই তাতে আন্তরিক ভাবেই মর্মাহত। আর তাই বালাকোটের অপারেশন ভারতের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার জঙ্গি বিরোধী কার্যকলাপের একটা নমুনা ছিল মাত্র৷’’

এছাড়াও তিনি বলেন, ‘‘আজ এই ঘনঘটা ঘেরা সময়ে গোটা দেশ যখন একই স্বরে কথা বলছে। তখন ঠিক সেই সময় ভারতের বিরোধী দলেরা কেন এমন অহেতুক অভিযোগ তুলছেন যে, জঙ্গি বিরোধী কার্যকলাপ নাকি কেন্দ্রীয় সরকারের রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত?’’ তবে জেটলির ওই ট্যুইটের উত্তর দিতেও ছাড়েনি কংগ্রেস৷ কংগ্রেস এর নেতা রণদীপ সিং সূর্যেওয়ালা অরুণ জেটলির এই কথার উত্তরে একটি ট্যুইট করেন। আর সেখানে তিনি বলেন, ‘‘বিজেপি আর তার নেতাদের এবার একটু নিজেদের দিকে তাকানো দরকার৷ দেশের এমন এক ভয়াবহ পরিস্থিতিতে যখন সমস্ত বিরোধী দল একযোগে সরকার আর সেনার পাশে এসে দাঁড়িয়েছে৷

ঠিক সেই সময় সেখানে এখনও কেন অমিত শাহ ও তার পুরো বিজেপি দলবল শহীদ জওয়ানদের আত্মবলিদান নিয়ে রাজনীতি করে যাচ্ছেন? শুধু তাই নয়, সাথে কংগ্রেসকেও তাঁরা তুলোধনা করতে পিছপা হচ্ছেন না ৷’’ সাথে সাথেই এর উত্তর দিয়েছেন অরুন জেটলিও৷ তিনি টুইটারে লিখেছেন, ‘‘ভারতের সমস্ত বিরোধী দলের কাছে আমার বিনীত আবেদন, দেশকে এক সুরে বলতে দিন৷ আর সময় থাকতে প্লিজ নিজেরা একটু ভেবে দেখুন, আপনাদের এই খারাপ মন্তব্যকেই কিন্তু আগামীতে পাকিস্তান ঢাল হিসাবে ব্যবহার করতে পারে৷’’

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: