জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় নিহত ৪২ জওয়ান, দায়ে স্বীকার জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের

HnExpress বিশেষ প্রতিবেদন ঃ ঠিক লোকসভা ভোটের মুখে কাশ্মীরে ফের বড়সড় জঙ্গি হামলা। জম্মু ও কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে হামলায় এখনো অব্দি নিহত অন্তত ৪২ জন জওয়ান। আহত অন্তত কমপক্ষে আরও ১৫ জন।

স্থানীয় সূত্রের খবর, শ্রীনগর-জম্মু হাইওয়েতে অবন্তীপোরায় সিআরপিএফ কনভয়ে অতর্কিতে আত্মঘাতী হামলা চালায় জঙ্গিরা। সুত্র থেকে জানা গিয়েছে, ৭৮টি গাড়িতে ৩টি ব্যাটালিয়নের এদিন অন্তত আড়াই হাজারের বেশি জওয়ান যাচ্ছিলেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, আইইডি বোঝাই একটি গাড়ি নিয়ে জঙ্গীরা ধাক্কা মারে ৫৪ নম্বর ব্যাটালিয়নের জওয়ানদের বাসে।

বিস্ফোরণের পরই শুরু হয় কনভয় লক্ষ্য করে গ্রেনেড ও গুলিবৃষ্টি। মৃত্যু হয় প্রায় ৪২ জন জওয়ানের। যদিও হামলার দায় স্বীকার করে নিয়েছে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ। এদিকে গতকালই পুলওয়ামার স্কুলে বিস্ফোরণে আহত হয় ১০ জন ছাত্র। আর তার ঠিক ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ফের জঙ্গি হামলা ভূস্বর্গে। ২০১৬ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর ভোরে উরিতে সেনাক্যাম্পে হামলা চালিয়ে ছিল জঙ্গিরা।

সেদিন মৃত্যু হয়েছিল কমপক্ষে ১৮ জন জওয়ানের। সেদিনের ভয়াবহতাকে ছাপিয়ে গেল এদিনের হামলা। এটাই কাশ্মীরে এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে বড় জঙ্গি হানা।

পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার পর একটি ভিডিও প্রকাশ করে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ। ভিডিওতে অদিল আহমেদ নামে এক জঙ্গিকে দেখা গিয়েছে। সে জানিয়েছে, গত বছরেই সে এই জঙ্গি দলে যোগ দিয়েছে। যোগদানের প্রায় এক বছর পরে তাকে কাশ্মীরে এই ‘মারণ হামলা’ চালানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। আদিলের বক্তব্য, এই ভিডিও যখন প্রকাশ পাবে, তখন সে স্বর্গে পৌঁছে যাবে। ভিডিও-তে জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের ব্যানারের সামনে রীতিমতো বন্দুক উঁচিয়ে কাশ্মীরের মুসলিমদের উপর অত্যাচারের অভিযোগ তুলেছে পুলওয়ামায় হামলাকারী আত্মঘাতী জঙ্গি আদিল। গোয়েন্দাদের অনুমান, সম্ভবত পুলওয়ামায় সেনা কনভয়ে আত্মঘাতী হামলা চালানোর আগে এই ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি ক্যামেরাবন্দি করেছে ওই জঙ্গিরাই।

দেখুন সেই ভিডিওটি

Leave a Reply

Latest Up to Date

%d bloggers like this: