গ্ৰামীণ মহিলারা “ভি.এফ.এস থেকে ঋণ নিয়ে রোজগারী হচ্ছেন

HnExpress ১৩ই মার্চ, অভিজিৎ হাজরা, হাওড়া ঃ বর্তমানে গ্ৰামীণ মহিলারা "ভি.এফ.এস" থেকে ঋণ নিয়ে রোজগারী হচ্ছেন। এমনই এক মহিলা হলেন হাওড়া জেলার পাতিহাল গ্ৰামের বাসিন্দা ৩২ বছর বয়সী বন্দনা পাল। যিনি অতীতে পুজোর জন্য ঘট তৈরীর কাজ করতেন। এই কাজটা যেহেতু সিজিন্যাল, তাই বছরের বেশির ভাগ সময়েই জীবিকা নির্বাহে সমস্যা হত।

এই সমস্যার সমাধানের জন্য ২০১০ সালে তিনি পেইন্টেড পটগুলি বিক্রির নিজস্ব ব্যবসা শুরু করার মনস্থির করেন। সেইমত তিনিও "ভিলেজ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস (ভি.এফ.এস) সংস্থায় যোগাযোগ করেন। ওই সংস্থা থেকেই তিনিও ঋণ নিয়েছিলেন। বর্তমানে বন্দনা পাল হলেন একজন সফল মহিলা উদ্যোক্তা।

আজ তিনি স্বামীর পাশাপাশি পরিবারের খরচ সমান ভাবেই বহন করছেন, ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়াও শেখাচ্ছেন। এমন কি নিজের গ্ৰামে বাড়ি তৈরি করেছেন। ব্যবসা বাড়ানোর জন্য এক বছর আগে তিনি "ভি.এফ.এস" থেকে অষ্টম বারের জন্য ৮০,০০০ (আশি হাজার) টাকা ঋণ নিয়েছিলেন।

 

 

বন্দনার মতোই অসংখ্য গরীব মহিলারাও এখন "ভি.এফ.এস" থেকে ঋণ নিয়ে উপকৃত হচ্ছেন বলে জানালেন বন্দনা দেবী। তাই ফলত অনেক মহিলাই এখন সফল উদ্যোক্তা হয়ে উঠেছেন। তিনি আরও জানালেন, "ভি.এফ.এস সংস্থাটি যৌথ দায় গোষ্ঠী (জে.এল.জি) মডেলের অধীনস্থ শুধুমাত্র মহিলা ঋণগ্ৰহীতাদেরই ক্ষুদ্র ঋণের এই পরিষেবা দিয়ে থাকেন।

এদিন “ভি.এফ.এস” এর এম.ডি. তথা সি.ই.ও কুলদীপ মাইতি সংবাদমাধ্যমকে বললেন যে, মহিলাদের যদি অর্থনৈতিকভাবে ক্ষমতায়িত করা হয়, তাহলে তারা সমাজের উন্নয়নের প্রতিনিধি হিসাবে তা দায়িত্ব সহকারে পালন করেন। নিজেদের ব্যবসার মাধ্যমে তারা তাদের পরিবারের পাশাপাশি, প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে রোজগার সৃষ্টি করে, সমাজেরও উন্নয়ন করে থাকেন। এছাড়াও সন্তান-সন্ততিদের লেখাপড়া শিখিয়ে, ভাল শিক্ষা দিয়ে পরবর্তী প্রজম্মকে ক্ষমতায়িত করে তোলেন।

তিনি বললেন, আজকের এই সমাজব্যবস্থা মহিলাদের সঙ্গে কতটা ভাল আচরণ করে বা করবে সেটাই সেই সমাজের সাফল্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সূচক। শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালন করলেই হবে না, সমাজে নারীকে নিজের ক্ষমতায় প্রতিষ্ঠিত হতে দিতে হবে। তবেই নারী দিবস পালনের যথাযথ তাৎপর্য তৈরি হবে। “ভি.এফ.এস বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা, বিহার, আসাম, ওড়িশ্যা, ঝাড়খন্ড, সিকিম, মধ্যপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, ছত্রিশগড়, মেঘালয় ও হরিয়ানা জুড়ে প্রায় ৫ লাখ মহিলা ঋণগ্ৰহীতাদের সঙ্গে কাজ করছে।

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: