কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের বাঙ্গুর হাসপাতাল পরিদর্শনের সময় সেখান থেকে এক রোগী হঠাৎই পালানোর চেষ্টা করে

HnExpress ২৩শে এপ্রিল, জয় গুহ, কলকাতা ঃ কেন্দ্রীয় প্রতিনিধির একটি দলের বাঙ্গুর হাসপাতাল পরিদর্শনের সময়ই ঘটল বিপত্তি। টালিগঞ্জের এম.আর.বাঙ্গুর হাসপাতাল থেকে হঠাৎই পালানোর চেষ্টা করে এক রোগী। হাসপাতাল চত্বর থেকে যদিও ওই ব্যক্তিকে আটক করেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তারপর তাঁর গায়ে জীবাণুনাশক স্প্রে করে হাসপাতালের ভিতরে ঢুকিয়ে নেওয়া হয়। তিনি করোনা সংক্রামিত নাকি অন্য কোনও অসুস্থতার জন্য হাসপাতালে রয়েছেন, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি। 

আজ, বৃহস্পতিবার দুপুর পৌনে একটা নাগাদ কেন্দ্রীয় প্রতিনিধির দল এম.আর.বাঙ্গুর হাসপাতাল পরিদর্শনে যায়। ঠিক সেই সময় দেখা যায় হাসপাতালের দরজা দিকে এগিয়ে আসছেন এক ব্যক্তি। যাঁর মুখে ছিল মাস্ক। তাঁকে দেখেই মনে হচ্ছিল তাঁর হাঁটার ক্ষমতাও বিশেষ নেই। প্রশ্ন করা হয়, হাসপাতাল থেকে বেরচ্ছেন কেন ? তিনি উত্তর দেন, হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যাচ্ছেন।

তাঁর উত্তর শুনেই অবাক হয়ে যান সকলেই। মুহূর্তের মধ্যে তাঁর আশপাশ থেকে সরে যান সবাই। ফাঁকা হয়ে যায় ওই ঘটনাস্থল। সেই সুযোগে পিপিই পরা তিনজন হাসপাতাল কর্মী ওই ব্যক্তির দিকে এগিয়ে যান। পালানোর চেষ্টা করা ওই ব্যক্তিকে পাকড়াও করেন তাঁরা। ওই ব্যক্তির গায়ে জীবাণুনাশক স্প্রে করে এরপর হাসপাতালের ভিতরে ঢুকিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে।  

তবে তিনি করোনা আক্রান্ত কিনা, নাকি তিনি কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন কিংবা অন্য কোনও রোগে আক্রান্ত কিনা, সে বিষয়ে এখনও কিছুই স্পষ্ট নয়।  হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, অসুস্থ বলে ওই ব্যক্তিকে এই হাসপাতালে কেউ রেখে গিয়েছেন। তবে নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে তাঁকে এখনও অব্দি ভরতি নেওয়া হয়নি।

উল্লেখ্য, দিনকয়েক আগে এই হাসপাতালের ভিডিও প্রকাশ্যে আসে। রোগীর পরিবারের অনেকেই সেসময় হাসপাতালের ‘অব্যবস্থা’ নিয়ে সরব হন। হাসপাতালে ঢোকার পর সেই ‘অব্যবস্থা’ চোখে পড়ার পরই কি সুযোগ বুঝে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন ওই ব্যক্তি, উঠছে সেই প্রশ্ন!

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: