এক অন্যরূপে মে দিবস পালন

HnExpress ১লা মে, অরুণ কুমার, জলপাইগুড়ি ঃ মে দিবসে শিশু শ্রমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের সাথে বিস্তর সময় কাটালেন শহরের এক তরুণ সমাজসেবী। এ যেন এক অন্যরূপে মে দিবস পালনের কাহিনী। সারা দেশ জুড়ে যখন লকডাউন পালন চলছে। তখন চলে এলো মে দিবস, সেই ঐতিহাসিক মে দিবস। বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন মানুষ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যেমন একদিকে মে দিবস পালনে ব্রতী, ঠিক তেমনই অপরদিকে আমরা দেখতে পেলাম মে দিবস উপলক্ষে এক অভিনব কর্মসূচি।

এই দিনটি পালন করলেন এক তরুণ প্রজন্মের সমাজসেবী শুভঙ্কর মিশ্র। উত্তরবঙ্গের অন্যতম শিশুশ্রমিক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ৫০ জন ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে এই মে দিবস উপলক্ষে তিনি সময় কাটালেন। নানাভাবে তাদের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতনতা পাঠ যেমন দিলেন, সেইসঙ্গে তাদের হাতে তুলে দিলেন একগুচ্ছ মাস্ক ও স্যানিটাইজার। সাথে নানান পুষ্টিকর খাদ্য সামগ্রীও।

কথা প্রসঙ্গে শুভঙ্কর মিশ্র জানালেন যে, এই ঐতিহাসিক মে দিবস উপলক্ষে সমাজের যারা চালক বা দিনমজুর শ্রমিক, যারা কিনা এই লক ডাউন চলাকালীন কর্মহীন রয়েছেন তাদের সন্তান-সন্ততিরা যাতে পুষ্টিকর খাদ্য পায় এবং সেইসঙ্গে তারা স্বাস্থ্য বিধান মেনে চলে সেই আত্মবিশ্বাস জাগিয়ে তোলার প্রচেষ্টায় তিনি এই মে দিবস উপলক্ষে জলপাইগুড়ি রেল স্টেশন সংলগ্ন জয়ন্তী পাড়ার এই শিশু শ্রমিক প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে তা পালন করেছেন।

তিনি যথেষ্ট খুশি তাদের সাথে সময় কাটিয়ে। ওই স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক প্রতিম চৌধুরী জানালেন যে, আজকের এই বিশেষ দিনটিতে শুভঙ্কর মিশ্রের মতো সমাজসেবীরা যেভাবে এগিয়ে এসেছেন তাতে তিনি আপ্লুত। সকলের আশীর্বাদ নিয়ে এই স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা সামনে এগিয়ে যাবে এবং এই করোনা রোগের মোকাবিলা করতে সক্ষম হবে বলে তার বিশ্বাস।

এই তাই শুভঙ্কর মিশ্র ও তার কয়েকজন বন্ধু মিলে শিশু শ্রমিক বিদ্যালয়ের প্রায় ৫০ জন ছাত্রছাত্রীকে প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী পাশাপাশি স্যানিটাইজার মাস্ক প্রভৃতি বিতরণ করেন। ওই ছাত্র-ছাত্রীরাও সবুজ রঙ্গিন মাস্ক পেয়ে খুব খুশি । তারাও বাড়িতে লকডাউন চলাকালীন স্বাস্থ্যবিধান বিধি মেনে চলছে বলে জানিয়েছে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: